শান্তিনিকেতনে উদযাপিত হল বাইশে শ্রাবণ ও বৃক্ষরোপণ উৎসব

0
1637

ইন্দ্রজিৎ রায় শান্তিনিকেতন

মহাসমারহ ও ঐতিহ্যের মেল বন্ধনে উদযাপিত হল কবিগুরুর প্রয়াণ দিবস বাইশে শ্রাবণ। সকালে উপাসনা গৃহে বৈদিক মন্ত্র, আচার্যের ভাষণ ও গানের মাধ্যমে স্মরণ করা হয় গুরুদেব কে। অনুষ্ঠানে আচার্য এর ভাষণ দেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী। সংগীত পরিবেশন করেন সংগীত ভবন এর ছাত্র ছাত্রীরা। সকাল থেকে শ্রাবনের বারিধারা বর্ষণ হলেও ছেদ পড়েনি অনুষ্ঠানে। পড়ুয়া ও পর্যটকদের উপস্থিতি ছিল দেখবার মতো।

এরপর বিশ্বভারতীর উপাচার্য রবীন্দ্রভবনে কবিগুরুর ব্যবহৃত চেয়ারে পুষ্পার্ঘ্য দিয়ে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন। আজ বাইশে শ্রাবণ উপলক্ষে বিশেষ চিত্র প্রদর্শনী “শান্তিনিকেতনে শ্যামলী বাড়ি ও তার ইতিহাস” শীর্ষক চিত্র প্রদর্শনী উদ্বোধন করেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য।

এই প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে শ্যামলী বাড়িতে বসবাস কালীন গুরুদেবের বিভিন্ন সময়ের ছবি, এবং অতিথি অভ্যাগতদের ছবি। মহাত্মা গান্ধীর সাথে রবীন্দ্রনাথের সাক্ষাতের ছবিটি ও স্থান পেয়েছে এই চিত্র প্রদর্শনীতে। উক্ত অনুষ্ঠানে রবীন্দ্রনাথের লেখা চিঠি ও ১৯৪০ সালে তোলা দুটি ছবি রবীন্দ্র ভবন কে উপহার দেন অধ্যাপিকা লীনা দাস ও মায়া দাস

বেলা ১১টায় শান্তিনিকেতনে সেন্ট্রাল লাইব্রেরীতে “রাজা ও প্রজা ” শীর্ষক বক্তৃতায় বক্তব্য পেশ করেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা প্রধান বিবেক দেবরায়।

বাইশে শ্রাবণ উপলক্ষে মূল অনুষ্ঠান বৃক্ষরোপণ অনুষ্ঠিত হবে শান্তিনিকেতনের আম্রকুঞ্জ সংলগ্ন সন্তোষালয় প্রাঙ্গণে।

সন্ধ্যায় শান্তিনিকেতনের লিপিকা প্রেক্ষাগৃহে অনুষ্ঠিত হবে কবিগুরুর বিভিন্ন গানের মাধ্যমে স্মরণ অনুষ্ঠানটি। পরিচালনা করবেন সংগীত ভবন অধ্যাপিকা স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়।

Previous articleঅ্যাকাউন্ট থেকে নিমেষে উধাও ২৩ লাখ,পাটিয়ালার মহারানির!
Next article“বনগাঁ পুরসভা পুনর্দখল তৃণমূলের, ফিরল ৪ বিদ্রোহী কাউন্সিলর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here