বাগদাদির অন্তর্বাস চুরি করেছিলেন কুর্দের গোয়েন্দারা,কি ভাবে জানুন

0
599

দেশেরসময় ওয়েব ডেস্কঃ রাতের আঁধার। উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ার ইদলিবের বারিশা চত্বর নিশ্চিদ্র ঘুমে আচ্ছন্ন। জনবিরল প্রান্তরে কয়েকটা বাড়ি ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। তার মাঝেই একটা বড়সড় কম্পাউন্ড। পাকা খবর আছে এখানেই সপরিবারে লুকিয়ে রয়েছে আইএস প্রধান বিশ্বের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ জঙ্গি নেতা আবু বকর আল বাগদাদি।

কম্পাউন্ড ঘিরে সতর্ক প্রহরা। আইএসের মতোই পোশাক পরে কম্পাউন্ডের দেওয়াল টপকে ভিতরে ঢুকলেন কুর্দের গোয়েন্দা বিভাগের এক দক্ষ অফিসার। সতর্ক, ধীর তাঁর গতি। আইএস প্রধানের ঘরে ঢুকে তার অন্তর্বাস চুরি করে নিরাপদে বেরিয়ে এলেন কম্পাউন্ড থেকে। কাকপক্ষীও টের পেল না।

আইএস প্রধানকে হত্যার ছক কষার অনেক আগে থেকেই ঘুঁটি সাজাচ্ছিল সিরিয়া ও ইরাকের কুর্দ বাহিনী। বারিশা চত্বরে বাগদাদির সম্ভাব্য আস্তানার খোঁজ মেলার পর থেকেই তার প্রতিটা গতিবিধির উপর সতর্ক নজর ছিল সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সের।

সোমবার কুর্দ বাহিনীর অফিসার পোলাট ক্যান সবিস্তারে জানান, কীভাবে আইএস প্রধানের খোঁজ মিলেছিল এবং কীভাবে তার বাড়িতে ঢুকে অন্তর্বাস চুরি করে এনেছিলেন কুর্দের গোয়েন্দা বিভাগের দক্ষ অফিসাররা। এই অন্তর্বাস ফরেন্সিক ল্যাবে পরীক্ষা করে ডিএনএ টেস্টের কাজে লাগানো হয়। বাগদাদি নিকেশ হওয়ার পরে এই ডিএনএ-র সঙ্গে মিলিয়ে দেখেই মার্কিন গোয়েন্দারা নিশ্চিত হন যে সত্যি সত্যিই খতম হয়েছে ওই কুখ্যাত জঙ্গি নেতা।

সুড়ঙ্গে বাগদাদির উপর ঝাঁপাতে গিয়েছিল এই সেনা কুকুর

আইএস প্রধান আবু বকর আল বাগদাদি নিকেশের আগা থেকে গোড়া মার্কিন সেনার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কাজ করেছে এই সেনা-কুকুর। অন্ধকার সর্পিল সুড়ঙ্গে মানুষের গন্ধ পেয়ে সেনাদের পথ নির্দেশ দিয়েছিল বেলজিয়ান ম্যালিনয়েস জাতের এই জাঁদরেল কুকুর। বাগদাদিকে ধরতে সুড়ঙ্গের ভিতর একা ছুটে গিয়েছিল এই। একে দেখেই চিৎকার করে উঠেছিল আইএস প্রধান। কঁকিয়ে কেঁদে উঠেছিল তার তিন সন্তান। মার্কিন সেনা জানিয়েছে, বিস্ফোরণে জখম হলেও এর তেজ বিন্দুমাত্র কমেনি। এই সেনা-কুকুরকেই এখন টার্গেট করতে চাইছে আইএস জঙ্গিরা।

দক্ষ, সাহসী এই সেনা-কুকুরের নাম, পরিচয় সামনে আনেনি মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। জানানো হয়েছে, এই কুকুরের চিকিৎসা চলছে। নিরাপত্তাও বহুগুণ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। মার্কিন সেনার অনেক অভিযানেই সাহসের পরিচয় দিয়েছে এই সেনা-কুকুর। বাগদাদি নিকেশ অভিযানে এর কৃতিত্ব কোনও অংশেই কম নয়। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইট করে বলেছেন, “আমরা এই সাহসী সেনা-কুকুরের ছবি সামনে আনছি, তবে এর পরিচয় গোপনই থাক। আইএস প্রধানকে ধরতে এবং তার হত্যা অভিযানে সবচেয়ে বেশি কৃতিত্ব এই সেনা-কুকুরেরই।”


মার্কিন ডেল্টা ফোর্সের জয়েন্ট চিফ জেনারেল মার্ক মিলে জানিয়েছেন, অসাধারণ দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন এই বেলজিয়ান সেনা-কুকুর। চিনুক এবং ব্ল্যাক হক হেলিকপ্টারে ডেল্টা ফোর্স-সহ এলিট বাহিনী যখন উত্তর ইরাক থেকে ধীরে ধীরে এগিয়ে যাচ্ছিল সিরিয়ার ইদলিবের বারিশার দিকে, সবচেয়ে বেশি চনমনে ও উত্তেজিত দেখা গিয়েছিল এই সেনা-কুকুরকে। মার্কিন বাহিনী দু’ভাগে ভাগ হয়ে গিয়ে অভিযান চালায়। বায়ুসেনার কপ্টার যখন ক্রমাগত গোলা বর্ষণ করে চলেছিল আইএস ঘাঁটিতে, অপর দল তখন ঢুকে পড়েছিল বাগদাদির ডেরায়। এই কুকুরই সবচেয়ে আগে ছুটে গিয়ে বাগদাদির খোঁজ দেয়। সেই মতো তার ঘরে ঢুকে পড়ে মার্কিন বাহিনী। বাগদাদিকে আড়াল করে দাঁড়ালে গুলিতে উড়িয়ে দেওয়া হয় তার দুই স্ত্রীকে।

Previous articleলাদেনের মতোই সমুদ্রের জলে ফেলল আল-বাগদাদির দেহ
Next articleবনগাঁয় বিজেপি কর্মীকে মারধরের অভিযোগে যশোর রোড অবরোধ বিজেপি কর্মী সমর্থকদের:দেখুন ভিডিও

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here