দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ অমৃতলোকের পথে যাত্রা করলেন ভারতের চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত। একা নয়, সঙ্গী হলেন তাঁর স্ত্রী এবং আরও ১১ জন সেনাকর্মী। আজ রাজধানীর ব্রার স্কোয়্যারে বিকেল ৪টেয় শেষকৃত্য সম্পন্ন হল তাঁর। চোখের জলে তাঁকে বিদায় জানাল কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী। 

চোখের জলে ভারতের প্রথম চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ (সিডিএস) জেনারেল বিপিন রাওয়তকে শেষ বিদায় জানাল দেশ। একই চিতায় পাশাপাশি শোয়ানো হল জেনারেল বিপিন ও তাঁর স্ত্রী মধুলিকাকে। ১৭ তোপধ্বনির মাধ্যমে জানানো হল শেষ শ্রদ্ধা।

অন্য কারও মৃত্যুতে সাম্প্রতিক অতীতে এই দেশ এতটা আন্দোলিত হয়নি। শেষ দু’ দিন ধরে সংবাদমাধ্যম, সোশ্যাল মিডিয়া, বাস-ট্রাম থেকে চায়ের দোকানে একটাই আলোচনা। সেনার সর্বাধিনায়কের এমন আচমকা অনভিপ্রেত মৃত্যুতে হতভম্ভ সবাই। তাঁকে নিয়ে কোনও রাজনৈতিক দলাদলি নেই, নেই আমরা-ওরা তরজা। জেনারেল রাওয়াতের মৃত্যুতে প্রত্যেকেই শোকগ্রস্ত। শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করতেও দলমত নির্বিশেষে নেতারা এলেন।

বুধবার তামিলনাড়ুতে হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় সস্ত্রীক জেনারেল রাওয়ত-সহ ১৩ জনের। বৃহস্পতিবারই তামিলনাড়ু থেকে জেনারেল রাওয়ত ও তাঁর স্ত্রীর মৃতদেহ দিল্লিতে পৌঁছয়। শুক্রবার বিকেলে ১৭ তোপধ্বনির মধ্যে দিয়ে পূর্ণ সামরিক মর্যাদায় শেষকৃত্য।

পালাম বিমানবন্দরে জেনারেলকে শেষ শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংহ, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। দেশের প্রথম সিডিএস-কে তাঁর কামরাজ মার্গের বাসভবনে গিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল, উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিংহ ধামি, কংগ্রেস নেতা রাহুল গাঁধী থেকে অসংখ্য সাধারণ মানুষ। শেষ শ্রদ্ধা জানান তৃণমূল সাংসদরাও। তার পর জেনারেলের দেহ নিয়ে কামরাজ মার্গের বাসভবন থেকে ব্রার স্কোয়ারের উদ্দেশে রওনা দেয় শববাহী শকট। সেখানেও সঙ্গী হন বহু মানুষ।

নয়াদিল্লি: বিপিন রাওয়াতের শেষকৃত্য সম্পন্ন হল পূর্ণ সামরিক মর্যাদায়। আজ নয়াদিল্লির দিল্লি ক্যান্টমেন্টে প্রয়াত চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের শেষকৃত্য হয়। শাসকবিরোধী রাজনৈতিক মতভেদ ভুলে প্রত্যেকেই প্রয়াত বিপিন রাওয়াতকে শেষশ্রদ্ধা জানান। তৃণমূলের তরফে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যসভার সদস্য মৌসম বেনজির নূর, দোলা সেন, সুস্মিতা দেব এবং জহর সরকার। কামরাজ মার্গের বাসভবনে প্রয়াত সিডিএস জেনারেল বিপিন রাওয়াতকে শেষশ্রদ্ধা জানান রাজ্য বিজেপি সাংসদরা। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন  সুকান্ত মজুমদার, দিলীপ ঘোষ, সৌমিত্র খাঁ, রাজু বিস্তাস লকেট চট্টোপাধ্যায়।

গতকাল পালাম বিমানঘাঁটিতে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে উপস্থিত হয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এছাড়াও ছিলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল। আজ সকাল ১১টা থেকে কামরাজ মার্গের বাসভবনে শায়িত ছিল সিডিএস রাওয়াতের দেহ। সেখানে শ্রদ্ধা জানাতে আসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তারপর দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীরা, উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামিরা একে একে শ্রদ্ধা জানান। বাদ যাননি তৃণমূল সাংসদরাও। তাঁরাও সেনা সর্বাধিনায়ককে অন্তিম শ্রদ্ধা জানান। শববাহী গাড়িতে বিপিন রাওয়াত এবং তাঁর স্ত্রীর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় ব্রার স্কোয়্যার। বিকেল ৪টের ১৭টি তোপধ্বনির সঙ্গে পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁর অন্তেষ্ট্যি সম্পন্ন হল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here