ভোটাররা যেন তালিকা থেকে বাদ না যান,সহকর্মীদের দ্রুত কাজে নামার নির্দেশ মমতার

0
714

দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃভোটার তালিকার কাজে দলের কর্মীদের দ্রুত কাজে নামার নির্দেশ দিয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দলের সব পদাধিকারীদের মমতা সম্প্রতি একটি চিঠি পাঠিয়েছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘‌দেখবেন ভোটাররা যেন তালিকা থেকে বাদ না যান। এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কাজ।’‌

২৫ জুলাই থেকে জাতীয় নির্বাচন কমিশন সারা ভারত জুড়ে ইলেকটর্স ভেরিফিকেশন প্রোগ্রাম (‌ইভিপি)‌ চালু করেছে। বিভিন্ন এলাকায় শিবির করে সংশ্লিষ্ট ভোটারদের কাছ থেকে উপযুক্ত নথি চাওয়া হচ্ছে। তাঁদের বলা হয়েছে, আধার কার্ড, প্যান কার্ড ও ভোটার কার্ড নিয়ে অবিলম্বে এলাকায় নির্বাচন কমিশনের অফিসে দেখা করতে।

চিরকালই মমতা ভোটার তালিকা নিয়ে সচেতন, সতর্ক এবং খুঁতখুঁতে। এবারও তিনি বিষয়টিকে খুবই গুরুত্ব দিয়ে দেখছেন। কারণ, আগামী বছর ২০২০ সালে কলকাতা–সহ বেশকিছু পুরসভায় নির্বাচন রয়েছে। তারপর ২০২১ সালে রয়েছে রাজ্যে বিধানসভা ভোট। স্বভাবতই ভোটার তালিকা নিয়ে সক্রিয় হতে হচ্ছে তৃণমূলকে।

সহকর্মীদের পাঠানো চিঠিতে (মতান্তরে, নোটে) মমতা ভোটারদের উদ্দেশে লিখেছেন, ‘ভোটার তালিকায় নাম আছে কিনা, তা নথি জমা দিয়ে যাচাই করে নিন।’ এলাকার ভোটারদের তথ্য যাচাইয়ের কাজে উৎসাহ দিতে ও প্রয়োজনে সাহায্য করতেও দলীয় কর্মীদের অনুরোধ করেছেন তিনি।

কয়েকটি নোটে ছাপার অক্ষরের পাশাপাশি নিজের হাতেও নোট লিখেছেন। যাতে বলা হয়েছে, এই কাজে যেন কোনও গাফিলতি না হয়।

মমতার নির্দেশ পেয়ে দলের সাংসদ, বিধায়ক ও অন্য পদাধিকারীরা কাজে নেমে পড়েছেন। নির্বাচন কমিশন থেকে ইভিপি করতে হবে বলে অনেকের মোবাইলে এসএমএস–‌ও করা হয়েছে। ‘‌দিদিকে বলো’‌ জনসংযোগ কর্মসূচি করতে গিয়েও নেতারা ভোটার তালিকার কাজের প্রসঙ্গ তুলেছেন। কর্মিসভা করেও কর্মীদের নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে।

মমতা দলীয় নেতাদের নির্দেশ দিয়েছেন, বুথস্তর পর্যন্ত যেন সকলকে কাজে লাগানো হয়। দলের তরফেও ল্যাপটপ, ট্যাব ও মোবাইল নিয়ে শিবির করে কর্মীরা বসেছেন। ভোটারদের অনেকে তাঁদের কাছে আসছেন। কর্মীরাও তাঁদের সাহায্য করছেন।

Previous articleহিন্দি বিতর্কের মধ্যেই আমেরিকায় বাংলা বার্তা মোদীর
Next articleফিরে পাওয়া এক টুকরো অতীত

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here