ইন্দ্রজিৎ রায় দেশের সময় শান্তিনিকেতন

প্রতিবছর বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির পর নবীনবরণ একটি সাধারণ বিষয় কলেজ বা বিভিন্ন ভবনের বড়রা বরণ করে নেয় ছোটদের অর্থাৎ নবীনদের। এবছর বিশ্বভারতী সঙ্গীত ভবনের নবীনবরণ অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হলো মঙ্গলবার। তবে এবছর সংগীত ভবনের বড় দাদা-দিদিরা একটু অন্যরকম চিন্তা করেছিল ছোটদের জন্য৷

সম্প্রতি আমাজনের জঙ্গলে দাবানল তথা বিশ্ব উষ্ণায়ন বৃদ্ধির উদ্বেগের কথা চিন্তা করে প্রত্যেক নবীনের হাতে একটি করে চারা গাছ দেওয়ার কথা ভাবা হয়। তারা বিশ্বভারতীর উদ্যান বিভাগের সাথে যোগাযোগ করলে উদ্যান বিভাগ সম্মতি দেয় বিষয়টিতে।

মঙ্গলবার নবীন বরণ এর প্রথম পর্বে প্রথম বর্ষের প্রায় সাড়ে ৩৫০ জন ছাত্রছাত্রীদের হাতে আমলকি, আম, জাম, কাঠাল, দেবদারু, নিম প্রভৃতি গাছের চারা গাছ বিতরণ করেন ভবনের অধ্যাপক অধ্যাপিকারা। এই অভিনব পরিকল্পনা সম্বন্ধে ওয়াকিবহাল ছিলেন না ভবনের অধ্যক্ষ নিখিলেশ চৌধুরী, তিনি জানান এই ধরনের অভিনব উদ্যোগ সংগীত ভবনে প্রথম, পড়ুয়াদের এই পরিকল্পনা প্রশংসার দাবি রাখে।

মনিপুরী নৃত্যের মাস্টার ডিগ্রী ছাত্রী মোহিতা সেনগুপ্ত জানান চারিদিকে যেভাবে প্রকৃতি ধ্বংস করা হচ্ছে তার কথা ভেবে এই ধরনের পরিকল্পনা বিশ্বভারতীর উদ্যোগ বিভাগের সহযোগিতা ছাড়া এই কাজটি সম্পন্ন হতো না। চারাগাছে বিতরণের প্রথা আমরা শুরু করলাম চাইবো আগামী প্রজন্ম এই ভাবে যেন এগিয়ে এসে। এই সমস্ত চারাগাছ আগামীকাল বিশ্বভারতীর ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গায় রোপন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here