দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের অনুষ্ঠানে জয় শ্রীরাম ধ্বনি, বিরক্ত মুখ্যমন্ত্রী– এটা সরকারের অনুষ্ঠান, কোনও রাজনৈতিক দলের নয়। এই কথা বলে আজ বিকেলে ভিক্টোরিয়ার অনুষ্ঠানে চরম উষ্মা প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানালেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মঞ্চে উঠতেই জয় শ্রীরাম স্লোগান। বিরক্ত মুখ্যমন্ত্রী। বক্তব্য রাখতে চাইলেন না। বললেন, আমন্ত্রণ জানিয়ে অপমান করা উচিত নয়। প্রতিবাদে তিনি কিছু বলবেন না।


আজ নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মদিবস। সেই উপলক্ষে শহরে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দুপুর সওয়া তিনটে নাগাদ রেসকোর্সে এসে নামে তাঁর হেলিকপ্টার। এর পরে তিনি নেতাজি ভবন গিয়ে, সেখান থেকে যান ন্যাশনাল লাইব্রেরি। তার পরে এসে পৌঁছন ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে। উদ্বোধন করেন একটি প্রদর্শনী গ্যালারির। এর পরে তাঁকে স্বাগত জানাতে করা হয় একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের।

এর পরেই স্টেজে ওঠেন প্রধানমন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী ও অন্যান্য অতিথিরা। সেখানে মুখ্যমন্ত্রীকে কিছু বলার অনুরোধ করা হলে তিনি প্রচণ্ড রেগে যান। বলেন, “এটা কোনও রাজনৈতিক দলের প্রোগ্রাম নয়। আমি আর কিছু বলব না। বলব জয় বাংলা, জয় হিন্দ।”

এরপর পোডিয়াম থেকে নেমে মঞ্চের চেয়ারে বসে পড়েন মুখ্যমন্ত্রী।এদিন ভিক্টোরিয়ায় শুরুতেই একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়, কেন্দ্রীয় তথ্য সংস্কৃতি মন্ত্রী প্র্হ্লাদ যোশী পাশাপাশি বসেই সেই অনুষ্ঠান দেখেন।

এরপর মূল অনুষ্ঠানের শুরুতেই স্বাগত ভাষণ দেন কেন্দ্রীয় তথ্য ও সংস্কৃতিমন্ত্রী। দ্বিতীয় বক্তা হিসেবে মুখ্যমন্ত্রীকে ডাকা হয়। মুখ্যমন্ত্রী চেয়ার ছেড়ে পোডিয়ামের দিকে এগোতেই দর্শকাসন থেকে শুরু হয় জয় শ্রীরাম স্লোগান দেওয়া। দেখা যায় তখন বেশ কিছু স্বেচ্ছাসেবক তাঁদের থামানোর চেষ্টা করছেন। মুখ্যমন্ত্রী তখন পোডিয়ামের সামনে দাঁড়ানো। সঞ্চালক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বলেন, “আপনারা শান্ত হোন। মুখ্যমন্ত্রীকে বলতে দিন।”

এরপরই মাইকে নিজের ক্ষোভ উগরে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.