Weather Update  দক্ষিণবঙ্গে বর্ষার প্রবেশ কবে ? জানাল হাওয়া অফিস

0
68

দেশের সময় কলকাতা ফের একবার গরম বাড়ছে। কবে হবে বৃষ্টি? প্রশ্ন আম জনতার। এরই মধ্যে এবার দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা প্রবেশের সম্ভাবনা নিয়ে বড় আপডেট দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। জুন মাসের প্রথম সপ্তাহের শেষে বা দ্বিতীয় সপ্তাহের শুরুতে দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা প্রবেশ করতে পারে, এমনটাই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের আঞ্চলিক অধিকর্তা সোমনাথ দত্ত।

বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ অঞ্চল তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তা থেকে দানা বাঁধতে পারে নিম্নচাপও। যা ঝড়বৃষ্টি নিয়ে আসতে পারে দক্ষিণবঙ্গে। এমনটাই জানিয়েছে হাওয়া অফিস। তবে নিম্নচাপ তৈরির আগেই অবশ্য ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণের জেলাগুলিতে। চার জেলায় রয়েছে তাপপ্রবাহের পূর্বাভাসও।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, আপাতত আগামী রবিবার পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের সর্বত্র গরমের অস্বস্তি বজায় থাকবে। আরও বাড়তে পারে তাপমাত্রা। বীরভূম, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া এবং পশ্চিম বর্ধমানে শনিবার এবং রবিবার তাপপ্রবাহ হতে পারে। এ ছাড়াও, মুর্শিদাবাদ, পূর্ব বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম এবং পুরুলিয়ায় আগামী কয়েক দিন অস্বস্তিকর গরমের আবহাওয়া থাকবে। তবে সোমবার থেকে হতে পারে স্বস্তির বৃষ্টি।

হাওয়া অফিস জানিয়েছে, সোমবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সেই সঙ্গে ঘণ্টায় ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। আগামী সপ্তাহ জুড়ে ঝড়বৃষ্টি চলবে। তবে সেই সঙ্গে থাকবে গরমও।

বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ পরিস্থিতির দিকে নজর রেখেছে আলিপুর। তারা জানিয়েছে, ২৩ মে-র মধ্যে দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং তৎসংলগ্ন আন্দামান সাগরে একটি নিম্নচাপ অঞ্চল তৈরি হতে পারে। সেখান থেকে নিম্নচাপ তৈরি হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। নিম্নচাপ যদি তৈরি হয়, তা ঘনীভূত হয়ে উত্তর এবং উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হতে পারে। এর প্রভাবে বৃষ্টি হতে পারে গাঙ্গেয় বঙ্গে।

দক্ষিণবঙ্গের মতো উত্তরবঙ্গেও গরমের পাশাপাশি ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। শুক্রবার এবং শনিবার বৃষ্টি হতে পারে শুধু দার্জিলিং এবং কালিম্পঙে। বাকি জেলায় গরমের অস্বস্তি বজায় থাকবে। উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর এবং মালদহে শনিবার তাপপ্রবাহের সম্ভাবনাও রয়েছে। রবিবার থেকে বৃষ্টি হবে। উত্তরবঙ্গের সব ক’টি জেলাতেই রবিবার থেকে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি এবং ঝোড়ো হাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টি বেশি হতে পারে দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার এবং কোচবিহারে।

শুক্রবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৯.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের চেয়ে ২.৫ ডিগ্রি বেশি। বৃহস্পতিবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, স্বাভাবিকের চেয়ে ১.১ ডিগ্রি বেশি।

বাংলায় নির্ধারিত সময়ে প্রবেশ করতে চলেছে বর্ষা। কেরালাতেও বর্ষা ঢুকবে নির্দিষ্ট সময়ের আগে, এমনটাই জানাচ্ছেন আবহবিদরা। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, ১৯ মে রবিবার দক্ষিণ আন্দামান সাগর নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু অর্থাৎ বর্ষা প্রবেশ করবে নির্দিষ্ট সময়ের তিন দিন আগে। কেরালাতে ১ জুন সাধারণত বর্ষা প্রবেশ করে। কিন্তু, এবার ৩১ মে সেখানে প্রবেশ করতে পারে মৌসুমী বায়ু।

মে মাসের শেষেই আছড়ে পড়তে পারে সাইক্লোন রিমাল এই আশঙ্কা করা হচ্ছিল। কিন্তু, এখনই এই নিয়ে কোনও পূর্বাভাস দেয়নি আলিপুর। অযথা আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই বলেও জানানো হয়েছে হাওয়া অফিসের তরফে।

Previous articleBJP West Bengal : ‘কাজ হয়নি কেন?’ প্রশ্ন গ্রামবাসীর! প্রচারে বিক্ষোভের মুখে শান্তনু
Next articleLok Sabha Election 2024 জাদুসংখ্যা ২৭২ আসন না পেলে বিজেপির ‘প্ল্যান বি’ কী, প্রশ্নের উত্তরে কী জানালেন অমিত শাহ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here