Ebrahim Raisi Deathআশঙ্কাই সত্য হল, চপার ভেঙে ইরানের প্রেসিডেন্ট রইসির মৃত্যু

0
65

দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ চপার ভেঙে মৃত্যু হল ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রইসির। মারা গিয়েছেন চপারে রইসির সহযাত্রী তথা সে দেশের বিদেশমন্ত্রী হোসেন আমিরাবদোল্লাহিয়ানও। ইরানের সরকারি সংবাদ সংস্থার তরফে দু’জনের মৃত্যুর খবর এখনও আনুষ্ঠানিক ভাবে জানানো না হলেও, সে দেশের প্রশাসনিক আধিকারিকদের উদ্ধৃত করে এই খবর জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স।

ক্রমশ ক্ষীণ হচ্ছিল আশা। অবশেষে আশঙ্কাই সত্যি হল। ভয়াবহ হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। মৃত্যু হয়েছে তাঁর অর্থমন্ত্রী সহ মোট নয় জনের। আজারবাইজানের একটি পাহাড়ি অঞ্চলে জ্বলে যাওয়া অংশের হদিশ মিলেছিল আগেই। সেখানেই তুর্কির ড্রোন ক্যামেরায় ধরা পড়েছে হেলিকপ্টারের পোড়া ভগ্নাংশ।

ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের তরফে আগেই জানানো হয়, হেলিকপ্টারের ভগ্নাংশ উদ্ধারের স্থলে কোনও প্রাণের হদিশ মেলেনি। ফলে ইরানের প্রেসিডেন্ট এবং নয় মন্ত্রীর বেঁচে থাকার আশা ক্ষীণ। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির হেলিকপ্টার যে স্থলে ভেঙে পড়ে সেই এলাকায় সম্পূর্ণ জ্বলে গিয়েছে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে সমস্ত যাত্রীর মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে।’ এরপরই ঘোষণা করা হয় দুসংবাদ।

প্রবল ঝড়বৃষ্টি, তুষারপাত এবং তীব্র ঠান্ডার মধ্যেও উদ্ধারকাজ চলছে প্রেসিডেন্ট রাইসির খোঁজে। ইরানের রেড ক্রিসেন্টের প্রধান পিরহোসেন কোলিভান্দ বলেন, ‘আমরা ভগ্নাংশ দেখতে পেয়েছি। পরিস্থিতি খুব একটা ভালো মনে হচ্ছে না।’

রবিবার ভারতীয় সময় সন্ধ্যায় খবর পাওয়া যায়, হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়েছে আজারবাইজানগামী ইরানি চপার। তারপর থেকেই নিখোঁজ ছিলেন দেশের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। হেলিকপ্টারে তাঁর সঙ্গে ছিলেন ইরানের অর্থমন্ত্রী সহ মোট নয় জন। তুর্কির একটি নাইট ভিশন ড্রোনের মাধ্যমে উদ্ধারকাজে সাহায্য করা হয়। পূর্ব আজারবাইজানের পাহাড়ি এলাকায় এই ড্রোন একটি জ্বলে যাওয়ার অংশের সন্ধান পায়। তাভিল নামে ওই এলাকায় পাহাড়ে ঘেরা অঞ্চলের একটি বড় অংশ আগুনে পুড়ে গিয়েছে বলে অনুমান। ফলে আশঙ্কা করা হচ্ছে এই এলাকাতেই ভেঙে পড়েছিল ইব্রাহিম রাইসির চপার। সেখান থেকেই পড়ে উদ্ধার হয় হেলিকপ্টারের পোড়া ভগ্নাংশ।

৬৩ বছরের ইরানি রাষ্ট্রপ্রধানের সুস্থতা কামনা করে প্রতিটি দেশের তরফে বার্তা এসেছে। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতোল্লা আলি খোমেইনি দেশবাসীকে আতঙ্কিত না হয়ে প্রার্থনা করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘দেশ চালানোর কাজে কোনও প্রভাব পড়বে না। আমি আশা করছি, উপরওয়ালা আমাদের প্রিয় প্রেসিডেন্ট এবং তাঁর সঙ্গীসাথীদের সুস্থ অবস্থায় আবার আমাদের কাছে ফিরিয়ে দেবেন।’ ইব্রাহিম রাইসির হেলিকপ্টার ক্র্যাশের খবরে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইব্রাহিম রাইসিও। তিনি এক্স হ্যান্ডেলে একটি পোস্ট করে লেখেন, ‘বিপদের এই মুহূর্তে আমরা ইরানের পাশে রয়েছি। প্রেসিডেন্ট এবং তাঁর সহকর্মীদের সুস্থতা কামনা করছি।’ ইরাক, কুয়েত, কাতার, সৌদি আরব, সিরিয়া, রাশিয়া এবং তুর্কি উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

আবার আমেরিকার দিকে সন্দেহের আঙুল উঠলেও তাদের বক্তব্য, এই ঘটনার পিছনে কোনও সন্দেহ করার মতো কারণ নেই। সন্দেহের তীর ইজরায়েলের দিকেও। যদিও এখনও পর্যন্ত তাদের তরফে এই মর্মে কোনও বার্তা আসেনি।

Previous articleLok Sabha Election 2024পঞ্চম দফায় ভোটের হারে এগিয়ে উত্তর প্রদেশ, সকাল ৯টা পর্যন্ত বাংলায় ভোট পড়ল ১৫ শতাংশের বেশি, দেশে কোথায় কত হার?
Next articleWeather Update: ভোট পঞ্চমীতে দুর্যোগ ! ৫০-৬০ কিমি বেগে শুরু ঝোড়ো হাওয়া,বৃষ্টি -বজ্রপাত

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here