দেশের সময় কলকাতা : সপ্তাহ জুড়ে বাংলায় দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার পূর্বাভাস। বজ্রপাতের পাশাপাশি জেলায় জেলায় তুমুল ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। যার জন্য আগেভাগেই সতর্কতা জারি করেছে হাওয়া অফিস।

বঙ্গোপসাগরে তৈরি হয়েছে একটি নিম্নচাপ। এদিকে বাংলাদেশের ওপরে একটি ঘূর্ণাবর্ত অবস্থান করছে। এই আবহে  দুপুরেই ভিজল কলকাতা। দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতেই আজ এবং আগামী কয়েকদিন বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

কলকাতায় দুপুরেই অন্ধকার হল আকাশ। ঝেঁপে বৃষ্টি নেমেছে উত্তর থেকে দক্ষিণে। এদিকে দক্ষিণের অন্যান্য জেলাতেও বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে।

আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর,কলকাতার পাশাপাশি হাওড়া, হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ এবং নদিয়ায় আজ বজ্রপাত সহ মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে। আজ দক্ষিণবঙ্গের সব জেলায় হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। বুলেটিন অনুযায়ী, দক্ষিণের সব জেলায় আজ ৪০ থেকে ৫০ কিমি বেগে ঝড় বইবে। আগামী ২৮ মে পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের সব জেলায় বৃষ্টি হবে।    

শনিবার পর্যন্ত কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি এবং ঘণ্টায় ৫০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে।

হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, পূর্ব বাংলাদেশ ও সংলগ্ন অংশে সমুদ্র পৃষ্ঠের থেকে ১.৫ থেকে ৫.৮ উচ্চতার মধ্যে ঘূর্ণাবর্তের অবস্থান করছে। দক্ষিণ পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও হরিয়ানা থেকে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ পর্যন্ত সমুদ্র পৃষ্ঠের ওপরে ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে। এই কারণে, দক্ষিণ পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় আজ নিম্নচাপের সৃষ্টি হবে। এটি উত্তর-পূর্ব দিকে এগিয়ে শুক্রবার সকাল নাগাদ গভীর নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে। এর ফলে শনিবার পর্যন্ত ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

মৌসম ভবন জানিয়েছে, দক্ষিণপশ্চিম মৌসুমী বায়ুর অগ্রসরের জন্য পরিস্থিতি অনুকূর রয়েছে। এই আবহে মলদ্বীপ, কোমোরিন এবং দক্ষিণ বঙ্গোপসাগর হয়ে বর্ষা আরও এগিয়ে যাচ্ছে। এদিকে পূর্ব বাংলাদেশের ওপরে বর্তমানে একটি ঘূর্ণাবর্ত অবস্থান করছে। একটি অক্ষরেখা সেই ঘূর্ণাবর্ত থেকে হরিয়ানা পর্যন্ত বিস্তৃত। এই পরিস্থিতিতে ওড়িশা, ঝাড়খণ্ড, বিহার সহ পূর্ব ভারতে বৃষ্টি জারি থাকবে আগামী ৭ দিন।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here