হাবড়ার মানুষের মাথায় পাকা ছাদ হবে সময় সীমা বেঁধে দিলেন খাদ্যমন্ত্রী

0
470

দেশের সময়,হাবড়া: হাবড়ার সমস্ত মানুষের মাথার ওপর পাকা ছাদ থাকবে, তার সময় সীমা বেঁধে দিলেন রাজ্যের খাদ্য মন্ত্রীজ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

শনিবার হাবড়ায় একটি অনুষ্ঠানে এসে তিনি আশ্বাস দিলেন ২০২১ সালের ৩১ডিসেম্বরের মধ্যে উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়ার সমস্ত মানুষের মাথার ওপর পাকা ছাদ থাকবে

শুধু তাই নয়, এদিনের অনুষ্ঠানে হাবড়ার বিভিন্ন স্তরের নাগরিকদের জন্য সরকারি সুবিধা পাওয়ার নানা প্রকল্পের কথা শোনান তিনি। মন্ত্রীর এই কথায় স্বাভাবিকভাবেই খুশি স্থানীয় বাসিন্দারা।
এদিন হাবড়ার দেশবন্ধু পার্ক এলাকায় একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এলাকার বয়স্ক এবং বিধবা মহিলাদের মধ্যে বার্ধক্যভাতা ও বিধবা ভাতার চেক তুলে দেওয়া হয়। মন্ত্রী পরিসংখ্যান দিয়ে বলেন, ‘‌বার্ধক্য এবং বিধবা ভাতা মিলিয়ে ২৩০৫ জনের পাসবই চলে এসেছে।

বাকি থাকছে ১৫৯৪ জনের। সেগুলিও দু–তিন দিনের মধ্যে চলে আসবে। এর ফলে আপাতত এই প্রকল্পে হাবড়া এলাকায় কেউ বাকি থাকছেন না। এই প্রকল্পে উপভোক্তারা প্রতি মাসে ৭৫০ টাকা এবং ১০ টাকা কেজি দরে ৩ কেজি চাল এবং ২ কেজি গম পাবেন।

‘‌হাউস ফর অল’‌‌ প্রকল্পের মাধ্যমে যারা নিজস্ব সরকারি বাড়ি পাবেন, তাঁরা ব্যাঙ্কে ধাপে ধাপে মাত্র ২৫ হাজার টাকা জমা দেবেন। সরকার ৩ লক্ষ ৪৩ হাজার টাকা দেবে। কোনও দালাল নয়, সরকারি বাস্তুকারের সহযোগিতা নিয়ে নিজে তত্ত্বাবধান করে বাড়ি তৈরি করে নেবেন।’‌

এদিন তিনি আরও বলেন, ‘‌কয়েক দিনের মধ্যে হাবড়ার কলতান হলে বয়স্ক মানুষদের চোখ পরীক্ষা করার জন্য কলকাতা থেকে ১০ জন চক্ষু বিশেষজ্ঞ আসবেন। তাঁরা বিনামূল্যে চোখ পরীক্ষা করবেন। পরে তাঁদের বাড়িতে চশমা পৌঁছে দেওয়া হবে।

প্রথম ধাপে ১ হাজার মানুষকে এই পরিষেবা দেওয়া হবে। পরে এমন আরও ৪টি শিবির করে আরও ৪ হাজার বয়স্ক মানুষকে এই পরিষেবা দেওয়া হবে।খাদ্যমন্ত্রীর এই কথায় স্বাভাবিকভাবেই খুশি এলাকার মানুষ৷

Previous articleE Newspaper deshersamay.com
Next articleগোয়ায় ভেঙে পড়ল নৌবাহিনীর মিগ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here