দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ শুধু প্রিয়াঙ্কা রেড্ডি,আসিফা টুইংকেল নয়
দিনরাত প্রত্যেকটা মুহূর্তে প্রত্যক্ষ-পরোক্ষভাবে হয়ে যাওয়া ধর্ষণের প্রতিবাদ করলেন বনগাঁর শুভবুদ্ধি সম্পন্ন মানুষ।

পল্লবী মুখোপাধ্যায়, রুম্পা দে, রুদ্র ঘোষ, সুস্মিতা সিং সহ একদল যুবক যুবতীর উদ্যোগে বুধবার বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত নানা আঙ্গিকে প্রতিবাদ কর্মসূচী পালন করা হল। এদিন হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে বনগাঁর নীলদর্পণ অডিটোরিয়াম থেকে শুরু করে, মতিগঞ্জ মোড়, বাটার মোড়, হাই স্কুল মোড় হয়ে পুনরায় নীলদর্পণে প্রতিবাদ মিছিল শেষ হয়।

মিছিল চলতে চলতেই প্রতিবাদী স্লোগান, সচেতনতামূলক কথাবার্তা, আলাপ-আলোচনা।

উদ্যোক্তাদের বক্তব্য, ‘এই ছোট্ট প্রচেষ্টা অসংখ্য মানুষের না হোক অন্তত কিছু মানুষের মনে শুভ চেতনা যাতে উদয় হয় সেই আশা রেখেই।’

অন্যদিকে একের পর এক ধর্ষণ ও খুনের ঘটনা। হায়দরাবাদের ঘটনার এক সপ্তাহও হয়নি। তারমধ্যে ঘটে গিয়েছে আরও বেশ কয়েকটি ঘটনা। তারই প্রতিবাদে অনির্দিষ্টকালের জন্যে অনশনে বসলেন দিল্লির মহিলা কমিশনের প্রধান স্বাতী মালিওয়াল।

হায়দরাবাদে পশু চিকিৎসক ধর্ষণ ও খুনের ঘটনা এবং রাজস্থানে ছ’‌বছরের শিশুকে ধর্ষণ ও খুনের ঘটনার প্রতিবাদে এদিন দিল্লির যন্তরমন্তরে কয়েকশো মহিলার সঙ্গে অনশনে বসেন দিল্লি মহিলা কমিশনের প্রধান। ধর্ষণকারীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানান তিনি। অনশনে বসার পর থেকেই আসতে শুরু করেছে পুলিশের হুমকি। স্বাতীকে শীঘ্র জন্তমন্তর খালি করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ। দোষী সাব্যস্ত হওয়ার ছ’‌মাসের মধ্যে ধর্ষণকারীদের ফাঁসি দিতে হবে, তা সুনিশ্চিৎ করার আবেদন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে একটি চিঠিও লিখেছেন স্বাতী মালিওয়াল।

মহিলাদের নিরাপত্তা সংক্রান্ত বেশ কয়েকটি বিষয়েরও উল্লেখ করেছিলেন স্বাতী। কিন্তু সেই চিঠির আজও কোনও জবাব এসে পৌঁছায়নি। মহিলা কমিশন প্রধানের বক্তব্য, ‘‌নাবালিকা ও তরুণীদের ধর্ষণকারীদের বিরুদ্ধে ফাঁসির সাজা শোনাতে হবে। হায়দরাবাদ ও রাজস্থান কাণ্ডের ধর্ষণকারীদের মৃত্যুদণ্ড দিতে হবে।

গত বছরও প্রতিবাদ জানিয়েছিলাম। সেসময়ে সরকার আইন এনে জানিয়েছিল, কোনও নাবালিকার ধর্ষণকারীদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হবে। কিন্তু সেসব কিছুই কার্যকর হয়নি।’‌

ধর্ষণকারীদের ‘জনসমক্ষে পিটিয়ে মারা উচিত’ বলে রাজ্যভায় গত কাল মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন সমাজবাদী পার্টির সাংসদ জয়া বচ্চন। হায়দরাবাদ কাণ্ডে এক অভিযুক্তের মা সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ‘‌আমার ছেলেকেও ওইভাবেই পুড়িয়ে মারা উচিত।’‌

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here