দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ রোজভ্যালি তদন্তে এ বার এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট তলব করল অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে। আগামী ১৯ জুলাই তাঁকে তলব করেছে কেন্দ্রীয় তদন্ত এজেন্সি। জানা গিয়েছে রোজভ্যালির বেশ কিছু বিজ্ঞাপনে কাজ করেছিলেন প্রসেনজিৎ। সেখানেই টাকা-পয়সার লেনদেন সংক্রান্ত ব্যাপারে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন গোয়েন্দারা।

বাংলার চিটফাণ্ড দূর্নীতিতে কয়েক মাস ধরেই তদন্তে গতি বাড়িয়েছে সিবিআই এবং ইডি। গতকালই সিবিআই নোটিস পাঠিয়েছে অভিনেত্রী তথা তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায়কে। আগামী ১২ জুলাই তাঁকে হাজিরা দিতে বলেছে কেন্দ্রীয় তদন্ত এজেন্সি। গতকাল ইডি চার ঘণ্টা জেরা করেছে প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রী মদন মিত্রকে। গত সপ্তাহেই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের জেরার মুখে পড়তে হয়েছিল শিল্পী শুভাপ্রসন্নকে। এ বার সেই তালিকায় নাম জড়াল টলিউডের বুম্বাদার।

চিটফাণ্ড তদন্তের জন্য রাজ্য সরকারের গঠন করা সিটের সদস্যদের ইতিমধ্যেই কয়েক দফায় জেরা করেছেন গোয়েন্দারা। রাজীব কুমার থেকে অর্ণব ঘোষ- প্রত্যেককেই হাজিরা দিতে হয়েছে। বিধাননগরের প্রাক্তন গোয়েন্দা প্রধান অর্ণবকে যখন গোয়েন্দারা জেরা করছিলেন, তখন দেখা গিয়েছিল ট্রাঙ্ক ভর্তি নথি আসতে। জেরায় উঠে আসা তথ্যের সঙ্গে নথি মিলিয়ে দেখছেন গোয়েন্দারা। এর মধ্যে আবার সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেন এবং দেবযানী মুখোপাধ্যায়কে জেলে গিয়ে জেরা করতে চাইছেন সিবিআই কর্তারা। এই মর্মে কেন্দ্রীয় এজেন্সির আবেদন মঞ্জুর করেছে বারাসতের স্পেশাল কোর্ট। কেন্দ্রীয় তদন্ত এজেন্সি যে এ বার তদন্ত গুটিয়ে আনতে চাইছে, সেই ইঙ্গিত স্পষ্ট বলেই মনে করছেন পর্যবেক্ষকদের অনেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here