দেখুন- দেশের সময়-এর ‘মিউজিক ভিডিও’

অপির্তা দে, কলকাতা,দেশের সময়:

‘সুরের বাঁধনে’ নামে একটি গানের অ্যালবাম এবারের পুজোয় মুক্তি পাওয়ার পর,ফের নতুন ‘মিউজিক ভিডিও, দেশের সময় এর ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হলো। এবারে পোষাকের সাথে নতুন সিনেমা, নতুন গান পুজোর স্পেশাল ছিলই৷ আগের মত পুজোর গানের অ্যালবাম মুক্তি দেওয়ার হিড়িক এখন আর দেখা যায় না কলকাতা ও শহরতলিতে ,তবে ভারতের সীমান্ত শহর বনগাঁ কিন্ত সেই চর্চা ধরে রেখেছে । এমন কি পুজোর পরও সংগীত চর্চায় থেমে নেই শহর বনগাঁ। “দেশের সময়” নতুন প্রজন্মের শিল্পীদেরকে নিয়ে ,নতুন গান প্রকাশ এর কাজ শুরু করেছে৷ প্রতিভাবান শিল্পীদেরকে সকলের কাছে পরিচিত করানোই তাদের একমাএ লক্ষ্য।

এবারের মহালয়ার দিনে রবি ঠাকুরের দশ’টি গান নিয়ে ‘সুরের বাঁধনে’ অ্যালবামটি দেশের সময় -এর স্টুডিওতে মুক্তি পেয়েছে। অ্যালবামে কন্ঠ দিয়েছেন সোমা দেব নাথ৷

ভালোবাসি,ভালোবাসি ,আমি তোমার সঙ্গে বেঁধেছি,যদি জানতেম –এর মতো গান রয়েছে।সঙ্গীত ও যন্ত্রানুষঙ্গ পরিচালনা করেছেন সৌরভ চক্রবর্তী।

ছাত্রজীবন শেষ না হতেই শিক্ষক জীবনে পা দিয়েছেন। তরুণ শিল্পী সোমা দেবনাথ ৷এমাসেই প্রকাশিত হয়েছে তার প্রথম রবীন্দ্রসঙ্গীতের অ্যালবাম। তার সঙ্গীত যাত্রার গল্প শোনা যাক তার নিজের মুখেই…

গানের অ্যালবাম

এটাই আমার প্রথম অ্যালবাম ‘সুরের বাঁধনে’প্রকাশিত হয় আমার শহর বনগাঁয় ‘দেশের সময়’ স্টুডিও থেকে। গান শেখার সময় থেকেই মনে হয়েছিল গান রেকর্ড করাটাও জরুরি। গায়কিতেও কিছুটা পরিবর্তন এসেছে এর মধ্যে। তাছাড়া আমি শিক্ষকতা করছি প্রায় পাঁচ বছর ধরে। সে কারনেও গানের সঙ্গে বোঝাপড়া আগের থেকে ভালো হচ্ছে। প্রথমবার তাই প্রেম পর্ব পূজা পর্ব থেকে বিচ্ছিন্নভাবে গান নির্বাচন না করে নিজের ভালো লাগে যে গানগুলো করতে সেগুলো নিয়েই এই অ্যালবাম,’ভালোবাসি-ভালোবাসি, তারপর ফের সুযোগ এলো ‘দেশের সময়’ এর পক্ষ্য থেকে নিজের লেখা ও সুরে নতুন গাওয়ার৷ “বন্ধ ঘরে” গানটি গাইলাম এবং তার ‘মিউজিক ভিডিও’ টি প্রকাশিত হলো।

গান নিয়ে পরিকল্পনা

যতদিন পারব নিজের গানের স্কুলে শিক্ষকতা করবো। এছাড়াও এই স্কুলে বিনা মূল্যে দুঃস্থ ছেলে মেয়েদের জন্য গান শেখানো শুরু করেছি। পড়াশোনা শেষ করে এসে সমমনা বন্ধুদের নিয়ে কাজ শুরু করার পরিকল্পনা আছে। আমি একটু ভিন্ন ধারায় গান শেখাতে চাই। বাধাধরা একঘেয়ে নিয়ম ধরে গানের শিক্ষা না দিয়ে আমি কিছুটা ভিন্নভাবে গান শেখাতে চাই যেখানে সবাই মনের আনন্দে গান শিখতে পারবে। আর আমৃত্যু গান করে যাওয়ার ইচ্ছা আছে। রবীন্দ্রসঙ্গীতের বাইরে তিন কবির গান (দ্বিজেন্দ্রলাল রায়, অতুলপ্রসাদ সেন, রজনীকান্ত সেন) নিয়েও কাজ করার ইচ্ছা আছে। পাশা পাশি আধুনিক বাংলা গানের চর্চা করছি মন প্রাণ দিয়ে৷ নতুন গান লিখছি এবং সুর ও দিচ্ছি বেশ কিছু গানে৷

রবীন্দ্রসঙ্গীত ভবিষ্যতে…

আমার মনে হয় রবীন্দ্রনাথের গান স্বভাবতই সর্বসাধারণের জন্য না। এর একটা বাঁধা গণ্ডি আছে, নির্দিষ্ট শ্রোতাগোষ্ঠি আছে। কয়েক হাজার মানুষের মধ্যে আমার শ্রোতাগোষ্ঠী সীমাবদ্ধ। যেমন, আমার গানেরও বেশ ক’জন অনুরাগী আছেন। আমার আগের সিডি যিনি কিনেছেন তিনি হয়ত আবারও কিনবেন। কিন্তু নতুন কেউ কিনবে কিনা আমি নিশ্চিত নই। এই সিডি বিক্রির টাকা দিয়েই দুঃস্থ শিল্পীদের সাহায্য করতে চাই৷ আমার মনে হয় সবাই মিলে কিছু ‘ইন্টারেস্টিং’ কাজ করতে হবে এ বিষয়টা নিয়ে। নাহলে রবীন্দ্রসঙ্গীতের খুব বেশি নতুন শ্রোতা তৈরি হবে না। আমার স্কুল করার যে অন্যতম কারণ তাহলো ‘ট্রেডিশনাল’ পদ্ধতিতে না শিখিয়ে কিছু মজার প্রক্রিয়ায় রবীন্দ্রসঙ্গীত করা যাতে নতুন প্রজন্ম আকৃষ্ট হয়। যদিও রবীন্দ্রসঙ্গীতের আবেদন কখনওই হারাবার নয়। পশ্চিমা গান বা সংস্কৃতির প্রতি আমাদের অনেক ঝোঁক। তাই এসব থেকে নিজেদের স্বকিয়তা ধরে রাখতে হলে নিজেদের সংস্কৃতি নিয়ে ‘ইন্টারেস্টিং’ কাজ করতে হবে।

বনগাঁর প্রাক্তন বিধায়ক গোপাল শেঠ বলেন, বনগাঁ সংস্কৃতির পীঠস্থান,আর এই তরুণ শিল্পী সোমা দেবনাথ এর গান সকলকে মুগ্ধ করবে, এবং তার এই ভাল মনের জন্য বিশেষ করে দুঃস্থ ছেলে মেয়েদের জন্য গানের স্কুল গড়াকে সাঁধুবাদ জানাই,আমরা তার এই ভাল কাজের জন্য বনগাঁবাসী তার সাথে আছি।

কবি মলয় গোস্বামী বলেন আসলে সোমা তার সুরের বাঁধনে বনগাঁর মানুষকে বেঁধে ফেলেছে৷

দেশের সময় এর ইউটিউব চ্যানেলে দেখুন ‘সুরের বাঁধনে’ এবং “বন্ধ ঘরে” মিউজিক ভিডিও ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here