নীলাদ্রি ভৌমিক, দেশের সময় প্রত্যাশামতোই কলকাতা পুরসভার মেয়র হিসাবে ফিরহাদ হাকিম ও ডেপুটি মেয়র হিসাবে অতীন ঘোষকে বৃহস্পতিবার তৃণমূলের পুর কাউন্সিলদের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতে সর্বসম্মতিক্রমে গৃহিত হয়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যােপাধ্যায় শোভনবাবুর পদত্যাগ প্রসঙ্গে বলেন,আমাদের মধ্যে ঝগড়াঝাটি হয় নি । আগেও, কয়েকবার পদত্যাগ করতে চেয়েছিল৷ দল থেকে ফিরহাদ হাকিম কাননকে বোঝানোর চেষ্টা করেছিল। এদিন, বিদায়ী মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় নিরাপত্তারক্ষীদের মারফত পুর চেয়ারম্যান মালা রায়ের কাছে পদত্যাগ পত্র পাঠিয়ে দেন। দু’লাইনের পদত্যাগ পত্র সঙ্গে সঙ্গে গৃহীত হয়। পদত্যাগের পর শোভনবাবু বলেন, কেন পদত্যাগ করতে হল তা জানি না। দল চাইলে, বিধায়ক ও কাউন্সিলরের পদ ছাড়তেও প্রস্তুত। এমন কি দল চাইলে ফিরহাদ হাকিমকে ১৩১নম্বর ওয়ার্ড থেকে প্রার্থী করতে পারে। আজকের পুর কাউন্সিলদের বৈঠকের কথা আমাকে কেউ জানায় নি। যদিও, এ ব্যাপারে নতুন মেয়র ফিরহাদ হাকিমের মন্তব্য, আমি ঠিক জানিনা, কেন শোভন সভায় আসেনি। এই মিটিং বোরো চেয়ারম্যান ডেকেছিলেন। এর পরেই মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেন, মানুষের কাজই আমাদের অগ্রাধিকার। যাদবপুর, টালিগঞ্জের জল সমস্যা রয়েছে, কিছু অঞ্চলে জঞ্জাল সমস্যাও আছে সেগুলো দ্রুত সম্ভব সমাধনের ব্যবস্থা করা হবে। বিদায়ী পুর পারিষদ (স্বাস্থ্য) নতুন ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ বলেন, ডেপুটি মেয়রের দায়িত্ব অনেক। মেয়র যা দায়িত্ব দেবেন, তা পালন করব। সিপিএম বিধায়ক তথা শিলিগুড়ির মেয়র অশোক ভট্টাচার্য মেয়র নির্বাচন প্রক্রিয়াকে সংবিধান বিরোধী বলে উল্লেখ করেছেন। কংগ্রেস বিধায়ক মনোজ চক্রবর্তীর কটাক্ষ, মুখ্যমন্ত্রীর তাঁর দল, কর্মী ও কাউন্সিলরদের উপর ভরসা নেই। তাই, রাতারাতি বিধানসভায় বিল নিয়ে এসে পাশ করাতে হল। বিজেপি বিধায়ক দিলীপ ঘোষের উক্তি, নির্বাচিত কাউন্সিলরদের মধ্যে থেকে মেয়র নির্বাচন করা হলে ভাল হত।

Previous article‘মানুষ বড় কাঁদছে’…
Next articleফের নতুন বিতর্ক তৈরি করে দিলেন বৈশাখী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here