দেশের সময় ওয়েবডেস্ক: সিনেমার পর্দায় ‘বাহুবলী’ দেখার পর দর্শকদের মনে গেঁথে গিয়েছিল একটা দৃশ্য। গলা ডোবা জলেও মাহিষমতির বংশধরকে রক্ষা করার পণ নিয়েছিলেন রাজমাতা শিবগামী। তাই এক হাতে ধরে মাথার উপরে ছোট্ট শিশুকে নিয়ে তিনি পার হয়েছিলেন খরস্রোতা নদী।

বাস্তবেও এ বার দেখা মিলল এক শিবগামীর। তবে তিনি রাজমাতা নন, একজন পুলিশ অফিসার। নাম গোবিন্দ ছাবড়া। বন্যার দাপটে বেসামাল গুজরাতের ভদোদরা। সেখানেই বিপুল জলের মধ্যে আটকে পড়েছিল এক দেড় বছরের শিশু। হিরোর কায়দায় সেই বাচ্চাটিকেই উদ্ধার করেছেন ওই পুলিশ অফিসার। মাথায় একটা সবুজ রঙয়ের ছোট্ট প্লাস্টিকের গামলা। তাতেই ওই শিশুকে বসিয়ে সাঁতরে পেরিয়ে এসেছিলেন এক গলা জল।দেখুন সেই ভিডিও

এ ঘটনা ভদোদরার দেবীপুরা এলাকার। সেখানেই প্রবল বন্যায় একটা বাড়িতে আটকে পড়েছিলেন এক মা এবং তাঁর দেড় বছরের শিশু। আটকে ছিলেন আরও অনেকেই। তাঁদের উদ্ধার করতেই বৃহস্পতিবার দেবীপুরায় যায় গুজরাত পুলিশের একটি বিশেষ দল। সেই দলেই ছিলেন গোবিন্দ ছাবড়া। তিনি জানিয়েছেন, “ওখানে গিয়েই দেখি একটা বাড়িতে আটকে পড়েছেন মা আর শিশু। তখনই ভেবে নিয়েছিলাম যে ভাবেই হোক ওদের উদ্ধার করতেই হবে। বাচ্চাটাকে নিয়ে আসার সময় বুঝি ওকে মাথায় করে আনাটাই সবচেয়ে নিরাপদ। তাই গামলায় বসিয়ে মাথায় চাপিয়ে ওই শিশুকে উদ্ধার করি।” জানা গিয়েছে, পরে ওই বাচ্চাটির মাকেও নিরাপদে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here