দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ এটিএম কার্ডের মাধ্যমে টাকা তোলার দিন বোধহয় ফুরলো। কারণ, ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থা থেকে ডেবিট কার্ড তুলে নিতে চলেছে স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া। দেশের সব থেকে বড় ব্যাঙ্কের এই সিদ্ধান্তের কথা সোমবারই জানিয়েছে এসবিআই। ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান রজনীশ কুমার জানিয়েছেন, ধাপে ধাপে গোট ডেবিট কার্ড ব্যবস্থাই তুলে নেওয়া হবে।

ফিকি ও ইন্ডিয়ান ব্যাংকস অ্যাসোসিয়েশনের একটি অনুষ্ঠানে রজনীশ কুমার জানান, “আমরা চাই ডেবিট কার্ডের ব্যবস্থাই আর থাকবে না। আমি নিশ্চিত যে এই কাজ করতে আমরা সফল হব।” স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার ডেবিট কার্ড ব্যবহারকারীর সংখ্যাটা নেহাত কম নয়। এই ব্যাঙ্কের ডেবিট কার্ড আছে ৯০ কোটি। ডেবিট কার্ড মুক্ত ভারত গড়তে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে টাকা লেনদেনে জোর দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন রজনীশ কুমার।

এই ঘোষণায় অনেকেই চিন্তায় পড়ে গিয়েছেন। চিন্তা হওয়াটাই স্বাভাবিক। এতদিনের অভ্যাস কি আর হঠাৎ করে ছেড়ে দেওয়া যায়! কিন্তু ব্যাঙ্ক যা চাইছে তাতে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে প্লাস্টিকের ডেবিট কার্ড একেবারে তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা।

এটিএম কার্ড তুলে দিয়ে কী করতে চাইছে এসবিআই? টাকা তুলতে এবার কী করতে হবে?

এটিএম কার্ডের পরিবর্তে ইতিমধ্যেই ইয়োনো সার্ভিস চালু করেছে এসবিআই। অনেকটা ডিজিটাল লেনদেনের মতো হলেও এই পরিষেবায় নগদ টাকাও তোলা যায়। ইয়োনো সার্ভিস রয়েছে, এরকম জায়গায় এটিএম থেকে কার্ড ছাড়া সরাসরি টাকা তুলতে পারবেন গ্রাহক। অনেক দোকানেই এখন ইয়োনোর মাধ্যমে টাকা ট্রান্সফার করা যাচ্ছে। এই সংখ্যাটা দিন দিন বাড়ছে। গোটা দেশে ইতোমধ্যেই ৬৮,০০০ ইয়োনো ক্যাশ পয়েন্ট চালু করেছে এসবিআই। আগামী ১৮ মাসের মধ্যে এই সংখ্যাটা ১০ লক্ষে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে এসবিআই-এর।

ইয়োনো সার্ভিসের মাধ্যমে এটিএম থেকে নগদ টাকা তোলা যাবে ডেবিট কার্ড ছাড়াই। স্টেট ব্যাংকের এই নতুন পরিষেবা পেতে গেলে শুধু স্মার্টফোনে ইয়োনো (YONO) অ্যাপ ডাউনলোড করে নিলেই চলবে। এসবিআই-এর YONO অ্যাপের সাহায্যে স্মার্টফোন থেকে এসএমএস মারফত পাওয়া ছয় সংখ্যার পিন নম্বর ব্যবহার করতে হবে। এই পিন নম্বর পাওয়া যাবে শুধুমাত্র এসএমএস-এর সাহায্যে। তবে মাত্র ৬ মিনিটের জন্য ওই পিন বৈধ থাকে। পিন নম্বর ব্যবহার করে এর পর ফোন থেকেই করা যাবে ব্যাংক লেনদেনের যাবতীয় কাজ।

এসবিআই-এর দাবি, এটিএম প্রতারণা বন্ধ করার লক্ষেই এই নতুন পরিষেবা চালু করা হয়েছে। ২০১৭ সাল থেকেই এই পরিষেবা চালু হয়েছে। এবার তাতে বিশেষ জোর দেওয়া শুরু হল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.