দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ রণক্ষেএ কলেজ চত্বর । বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শা-র রোড শোয়ের পরে বিদ্যাসাগর কলেজের ভিতরে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা হয়। চলে তাণ্ডব। ঘটনা সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে কলেজে হাজির স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী। সঙ্গে পুলিশ কমিশনার। সেখানে আগেই পৌঁছেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়

সংঘর্ষে ভেঙে যাওয়া বিদ্যাসাগরের মূর্তির অংশ হাতে নিয়ে দেখেন মমতা৷ কথা বলেন কলেজের অধ্যাপকদের সঙ্গে৷ ঘুরে দেখেন কলেজের ভেঙে যাওয়া বিভিন্ন সম্পত্তি৷

বিদ্যাসাগর কলেজে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ জানিয়ে দিলেন, রাজ্যে হেরিটেজের গায়ে হাত পড়লে তাঁর থেকে ভয়ঙ্কর কেউ হবে না৷ তিনি বলেন, বিজেপির কাজে আমরা লজ্জিত৷ মনীষীদের গায়ে হাত দিলে ছাড়ব না৷ আইন-শৃঙ্খলা রাজ্যের বিষয়৷ বহিরাগতদের এনে এখানে রোড শো করেছে বিজেপি৷ পুলিশ কেন মিছিল করার অনুমতি দিল৷

“আমি এরকম রাজনৈতিক দলের দাঙ্গা কখনও দেখিনি। বিজেপির কিছু গুন্ডা এসেছে। নির্বাচন কমিশন আমাদের ছবি লাগাতে দেয় না। ওরা কোটি কোটি টাকার কাটআউট লাগিয়েছে।”– বলেন তিনি। তাঁর ক্ষোভ, অমিত শাহ ভগবান নন, যে ওঁর সমালোচনা করা যাবে না। মমতা বলেন, “মিছিলের পরে বিজেপির গুন্ডারা কেন বিদ্যাসাগর কলেজের ওপর চড়াও হয়! অমিত শাহ জানেন বিদ্যাসাগর কে!”

ঘটনাস্থলেই সাংবাদিক বৈঠক করে মমতা আরও বলেন, “অনেক মিছিল করেছে তৃণমূল। কখনও এমন ঘটেনি। বাইরে থেকে গুন্ডা এনে এমন ভাঙচুর! বাংলার মানুষ সহ্য করবে না। কাল আমার মিছিল আছে। সেটারই আগে ইচ্ছাকৃত ভাবে, বেআইনি ভাবে করল ওরা। ধিক্কার ও ঘৃণা রইল। আমরা তদন্ত করে দেখব। আমি নিজে লজ্জিত, ক্ষমাপ্রার্থী। আমার নিন্দের ভাষা নেই। বাংলার মানুষ হয়ে আমরা বিদ্যাসাগরকে বাঁচাতে পারলাম না! যারা মণীষীদের সম্মান দিতে পারে না, তারা দেশের দায়িত্ব নেবে! ওদের টাকার অহঙ্কার হয়েছে। কোটি টাকা দিয়ে গুন্ডা এনে বসিয়ে রেখেছে। নোটবন্দির টাকা ছড়াচ্ছে ওরা। ওরা নির্বাচন কমিশনের রীতি ভাঙছে।”

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরে পুলিশ কমিশনার রাজেশ কুমার জানান, তাঁরা খতিয়ে দেখবেন। যাঁরা ঘটনায় জড়িয়ে কাউকে ছাড়া হবে না। ইতিমধ্যেই ১০০-রও বেশি লোককে আটক করা হয়েছে বলে জানান তিনি।কলকাতায় ভোটের আগে রাজনৈতিক উত্তেজনা তীব্র হল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.