Padma Hilsa Fish : পুজোর উপহার ! বাঙালির পাতে পদ্মার ইলিশ!১৩ ট্রাক বোঝাই রুপোলি শস্য বাংলাদেশ থেকে ঢুকল ভারতে

0
484

অর্পিতা বনিক , পেট্রাপোল: পুজোয় ইলিশের স্বাদে মজবে বাঙালি! এই সুখবর আগেই শুনিয়েছিল হাসিনা সরকার।দুর্গাপুজোর আগেই পুজোর উপহার স্বরুপ সেই ইলিশ পেট্রাপোল সীমান্তের স্থল বন্দর দিয়ে বৃহস্পতিবার বিকালে ঢুকল এ রাজ্যে৷

দুর্গাপুজো মানে প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ঠাকুর দেখা, প্রিয়জনদের সঙ্গে আড্ডা আর জমজমাট খাওয়া দাওয়া। ইলিশ ছাড়া বাঙালির খাওয়া দাওয়া যেন পরিপূর্ণ হয় না। আর দুর্গাপুজোর আগেই ভোজনরসিক বাঙালির জাতির জন্য সুখবর। দুর্গাপুজোর আগেই রাজ্যে এসেছে পৌঁছল বাংলাদেশের পদ্মার ইলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেলে পেট্রাপোল সীমান্ত দিয়ে ইলিশ বোঝায় ১৩টি ট্রাক ভারতে প্রবেশ করে। সেই অনুযায়ী রাজ্যে প্রথম ধাপে প্রবেশ করল বাংলাদেশের পাঠানো ইলিশ বোঝাই ট্রাক। দেখুন ভিডিও

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে প্রত্যেক গাড়িতে ৫ টন করে ইলিশ রয়েছে। সব মিলিয়ে দুর্গাপুজোর আগে এই দফায় প্রায় ৬৫ টন ইলিশ বাংলাদেশ থেকে এদেশে এসে পৌঁছল। পশ্চিমবঙ্গে প্রায় ৪ হাজার মেট্রিক টন ইলিশ পাঠানোর কথা আগেই ঘোষণা করেছিল বাংলাদেশ সরকারের বাণিজ্য মন্ত্রক।

বাংলাদেশের বাণিজ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, মোট ৭৯টি সংস্থাকে ভারতে ইলিশ রফতানির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। ৩০ অক্টোবর অবধি দফায় দফায় বাংলাদেশ থেকে আরও ইলিশ বাংলায় আসবে। সব মিলিয়ে মোট ৩ হাজার ৯৫০ মেট্রিক টন ইলিশ আসার কথা রাজ্যে। ফলে মনে করা হচ্ছে পুজোর আগেই বাঙালির পাতে উঠবে এই সুস্বাদু মাছ।

বাংলাদেশ থেকে প্রথম দফায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ১৩টি ট্রাকে প্রায় ৬৫ টন ইলিশ এসে পৌঁছনোয় খুশি মাছ বিক্রেতারাও। জানা গিয়েছে, আগামী কয়েকদিন রাজ্যের প্রায় সব বাজারেই মিলবে পদ্মার ইলিশ।

মাছ ব্যবসায়ীদের দাবি, বাংলাদেশ থেকে আসা ইলিশ মাছের অধিকাংশগুলির ওজনই ৮০০ গ্রাম থেকে দেড় কেজির মধ্যে। তবে মাছগুলির দাম কেমন থাকবে, তা খোলসা করতে চাননি ব্যবসায়ীরা। তবে মনে করা হচ্ছে প্রথম দফায় ইলিশের দাম একটু চড়া হতে পারে। জোগান আরও বাড়লে কমবে দামও।

এদিন পেট্রাপোলে ক্লিয়ারিং এজেন্টদের সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তী বলেন, ‘এখন থেকে প্রতিদিনই কিছু কিছু করে আসতে থাকবে বাংলাদেশের ইলিশ। ই সিস্টেমে অনলাইনে কাগজপত্র সংক্রান্ত কাজের কারণে সামান্য দেরি হল। তবে অবশেষে ইলিশ যে এসে পৌঁছেছে এটাই আনন্দের। গতবারও ইলিশ মাছ পাঠিয়েছিল বাংলাদেশের সরকার। এবার কিছুটা দেরিতে হলেও, বাঙালি এই মাছ পাবে। পুজোর আগে এর থেকে বড় সুখবর আর কী বা হতে পারে।’

দ্য ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক এমডি, নাজিরউদ্দিন দেশের সময়’কে জানান,দু’পারের বাঙালির প্রিয় মাছ ইলিশ৷ সেই মাছ দুর্গাপুজোর আগেই পশ্চিমবঙ্গের ব্যবসায়ীদের কাছে পৌঁছে দিতে পেরে আমরাও খুব খুশি৷ মনে হচ্ছে দুর্গোৎসবে সামিল হতে পেরেছি ৷ দু’দেশের বাণিজ্যেও এর ফলে আরও জোয়ার আসবে ৷ বাংলাদেশের সরকারকেও ধন্যবাদ জানাই৷

ইলিশ বোঝাই ট্রাক নিয়ে ভারত সীমান্তে আসা বাংলাদেশের লরিচালক নূর মহম্মদ ইসলাম বলেন, ‘দুর্গাপুজোর উপহার হিসেবে বাংলাদেশ সরকার ইলিশ পাঠিয়েছে। বরিশাল থেকে এই ইলিশ আমরা নিয়ে এসেছি। বাঙালির পাতে এবার পুজোর আগেই ইলিশ মাছ উঠবে। আগামী দিনে বাংলাদেশ থেকে আরও বেশি ইলিশ মাছ ভারতে আসবে।’

দাম কি মধ্যেবিত্তের নাগালে থাকবে? পেট্রাপোল সীমান্তের ইমপোর্টার রামকৃষ্ণ বিশ্বাস জানাচ্ছেন, থাকবে। তাঁর কথায়, ‘‘শুরুর দিকে দাম হয়তো একটু বেশি থাকবে। ১ কেজি ইলিশ পাইকারি বাজারে ১২০০ থেকে ১৩০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হবে। ৭০০ গ্রামের ইলিশগুলো ৭০০-৮০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হবে। নভেম্বরের ১০ তারিখ পর্যন্ত এই ইলিশ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন বাজারে পাওয়া যাবে।’’

উল্লেখ্য, ২০১২ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ থেকে ভারতে ইলিশ রফতানি বন্ধ ছিল। ২০১৯ সাল থেকে পুনরায় রফতানি শুরু হয়। ২০২০ সালে দুর্গাপুজোর আগে ৫০০ মেট্রিক টন ইলিশ আমদানি হয়। ২০২০ সালে আমদানি হয় ১,৮৫০ মেট্রিক টন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here