DRDO : অবশেষে আকাশে রহস্যময় আলোর উৎসের হদিস মিলল প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে!

0
1201

দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ সন্ধে ঘনিয়েছে সবে। আচমকা আকাশে আলোর রশ্মি দেখে চমকে ওঠেন কলকাতার লোকজন। অনেকে অতি উৎসাহে স্টেটাস দেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর তা করতে গিয়েই দেখা যায়, শুধু কলকাতা নয়, বাংলারর নানা প্রান্ত থেকে নেটিজেনরা পোস্ট দিচ্ছেন এই রহস্যময় আলোর বিষয়ে।

আলো নিয়ে বিস্ময়ের পাশাপাশিই ছড়াতে শুরু করে গুজবও। টর্চের মতো ওই আলো দেখে অনেকেই বলতে শুরু করেন, ধূমকেতু নয় তো! কেউ কেউ আবার বলেন, ড্রোন ওড়ানো হচ্ছে বিশেষ কারণে। কিন্তু একটু সময় গড়ালেই স্পষ্ট হয়ে যায়, এই আলো বিভিন্ন জেলা থেকেই দেখা যাচ্ছে। এটি ধূমকেতু নয় বলেই মনে হচ্ছে, কারণ গতি নেই আলোটির। টর্চের মতো জ্বলে রয়েছে স্থির আলো।

তবে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, আজ, বৃহস্পতিবার ওড়িশার হুইলার্স আইল্যান্ড থেকে ছোড়া হয়েছে ক্ষেপণাস্ত্র, অগ্নি ৫ মিসাইল । বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, আজ বিকেলে রাজ্যের নানা প্রান্ত থেকে দেখা যাওয়া আলোটি অগ্নি ফাইভ ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের কারণেই দেখা গেছে। এই প্রথম সর্বোচ্চ পাল্লা, ৫০০০ কিলোমিটার রেঞ্জে মিসাইল উৎক্ষেপণ করেছে ভারত। ভারত মহাসাগরে নির্দিষ্ট লক্ষ্যে ছোড়া হয়েছে এটি।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নাইট ট্রায়াল (রাতের অন্ধকারে পরীক্ষা) সফল হয়েছে অগ্নি ৫ ক্ষেপণাস্ত্রের, যার রেঞ্জ ৫০০০ কিলোমিটারের বেশি। অন্ধকারেও দূরের শত্রুকে সঠিকভাবে নিশানা করতে পারে কিনা, তা পরীক্ষা করে দেখার জন্যই এই উৎক্ষেপণ। এই মিসাইলে আগের থেকে আরও অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে।

এই খবর জানা গিয়েছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে। যদিও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা নিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে এখনও কিছু জানানো হয়নি ডিআরডিও-র তরফে।

Previous articleKIFF 22 Amitav Bacchan :অমিতাভ বচ্চনকে ভারতরত্ন দেওয়া উচিত, দাবি তুললেন মুখ্যমন্ত্রী,এখনও যে ওর মাথাটা ঠিক আছে, এই অনেক : জয়া
Next articleSarada Devi: সারদা মায়ের চন্দনা পাখিটি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here