দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ নেফ্রোলজি বিভাগের সামনে রোগীর লম্বা লাইন। সেখানে দীর্ঘক্ষণ দাঁড়়িয়ে থাকতে থাকতেই অসুস্থ হয়ে পড়েন প্রৌঢ়া। তাঁকে ধরাধরি করে লাইন থেকে বার করে এনে শোয়ানো হয় চত্বরে। সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, মৃতার নাম নন্দরানি দন্ডপত। বয়স ৫৫ বছর। রোগীর মৃত্যু ঘিরে উত্তেজনা ছড়িয়েছে হাসপাতালে।


দূরদূরান্ত থেকে আসা রোগীদের লম্বা লাইনে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে টিকিট কাটতে হয়। এই নিয়ে অভিযোগ দীর্ঘদিনের। রোগীদের কষ্ট কমাতে তাই দিনকয়েক আগেই রীতিমতো ঢাকঢোল পিটিয়ে ই-টিকিট ব্যবস্থা চালু হয়েছে এসএসকেএমে। তারপরেও এমন ঘটনায় বিড়ম্বনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

প্রত্যক্ষদর্শীদের কথায়, সোমবার নেফ্রোলজি বিভাগের সামনে রোগীদের লম্বা লাইন ছিল। সেখানেই লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন নন্দরানি। তাঁর শারীরিক অবস্থা বিশেষ ভালো ছিল না। বেশ কয়েকবার হাঁসফাঁস করতে দেখা গেছে তাঁকে। আচমকাই মাটিতে পড়ে যান তিনি। ছটফট করতে শুরু করেন। তাঁকে ধরাধরি করে লাইনের বাইরে বার করে আনেন আশপাশের লোকজন। চোখে মুখে জল দেওয়া হয়। কয়েকজন ছুটে গিয়ে খবর দেন এমার্জেন্সি বিভাগে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কথায়, এক মহিলা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন খবর পেয়েই ছুটে আসেন চিকিৎসক। তবে চিকিৎসা শুরুর আগেই মৃত্যু হয়েছিল তাঁর।

ঘটনার পরই ক্ষোভে ফেটে পড়েন লোকজন। অভিযোগ ওঠে, অসুস্থ শরীরে এমন লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হয় রোগীদের। আগেও অনেক বয়স্ক রোগী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। সব দেখেও কোনও ব্যবস্থা নেয় না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

দূরদূরান্ত থেকে আসা রোগীদের লম্বা লাইনে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে টিকিট কাটতে হয়। এই নিয়ে অভিযোগ দীর্ঘদিনের। রোগীদের কষ্ট কমাতে তাই দিনকয়েক আগেই রীতিমতো ঢাকঢোল পিটিয়ে ই-টিকিট ব্যবস্থা চালু হয়েছে এসএসকেএমে। তারপরেও এই ঘটনায় যথেষ্ঠ বিড়ম্বনার পড়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

Previous articleবিজেপির ‘সংকল্প যাত্রা’ ঘিরে সমর্থকদের সঙ্গে পুলিশের ধুন্ধুমার
Next articleশিবরাত্রী পালন কি শুধু শিবরূপী বরের আশায়? জানতে পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here