দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ স্তন্যপান নিয়ে সামাজিক ছুৎমার্গ কাটাতে অভিনব প্রচার শুরু হল লন্ডন শহর জুড়ে। সারা শহরের বহুতলের মাথায় বসানো হয়েছে স্তনের আদলে বেলুন।

গোটা প্রচারে এগিয়ে এসেছে একটি বিজ্ঞাপন সংস্থা৷ নাম দেওয়া হয়েছে #FreeTheFeed৷ মাদার্স ডে থেকেই শুরু হয়েছে এই প্রচার৷ এই প্রচার চলছে লন্ডনে৷ ওই সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে সচেতনতা গড়ে তুলতেই এই পদক্ষেপ। তবে এমনভাবে শহর সাজলেও, অনেকেই এই নিয়ে মস্করা করছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে এ নিয়ে শুরু হয়ছে সমালোচনাও।


কয়েক মাস আগে কলকাতায় শপিং মলে কোলের শিশুকে স্তন্যপান করাতে গিয়ে হেনস্থার শিকার হয়েছিলেন এক তরুণী। তারপর থেকে বাইরে সন্তানকে স্তন্যপান করানোর দাবি নিয়ে সরব হন ওই মহিলা। প্রচার শুরু করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। পাশে দাঁড়িয়েছিল গোটা শহর। অবশেষে এই দাবি সরকারি স্বীকৃতিও পেয়েছিল। শহরের সবকটি মলে ‘মাদার কেয়ার রুম’ তৈরির নির্দেশ দেয় কলকাতা পুরসভা।
লালভেন্টলুয়াঙ্গি ওরফে ভেনি। তিনি মিজোরামের রাজ্যস্তরের ভলিবল খেলোয়াড়। আবার তুইকুম নামে একটি ক্লাবের অধিনায়ক। আবার তিনি মা। কোনও কিছুতেই আপোষ করেন না তিনি। নিজের খেলার সঙ্গে যেমন তিনি কোনও আপোষ করেন না, তেমনি খেলার মাঝেই সামলাতে পারেন নিজের ছোট্ট সন্তানকে। বিরতিতে ছুটে যান সন্তানের কাছে। হাফটাইমে সবাই যখন নিজের পরিচর্যায় ব্যস্ত তখন মা ভেনি স্তন্যদান করেন সন্তানকে। সেই ছবিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।
কয়েক বছর আগে ব্রাজিলের সংসদে এক মহিলা সাংসদকে দেখা গিয়েছিল বাজেট অধিবেশনের ফাঁকে আড়াই মাসের শিশুকে স্তন্যপান করাতে। সেই ছবি হইচই ফেলে দিয়েছিল দুনিয়া জুড়ে। কিন্তু সারা পৃথিবীতে এখনও যে রক্ষণশীলতা আছে তা ভাঙতেই লণ্ডনে এমন প্রচার বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.