বাঙালির ভ্যালেনটাইন্সডের প্রস্তুতি চলছে জোর কদমে

0
1013

দেবন্বিতা চক্রবর্তী: নানান রাজনৈতিক টানাপোড়েন এর মধ্যেই এবার আসতে চলেছেন মা সরস্বতী তার বাহন হংস সগযোগে ৷ প্রতি বছর মায়ের আগমনের আশায় থাকে ছাত্র ছাত্রীরা , তাদের মনের আবেগ তো বটেই সাথে থাকে পরীক্ষার ভয় থেকে মুক্তির উপায় মায়ের কাছ থেকে চেয়ে নেওয়া , সে স্কুল কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয় হোক না কেন ছাত্রছাত্রীরা মুখিয়ে থাকে এই দিন টির জন্য ৷ তবে এটা মানতেই হবে বয়স বিশেষে এই দিনের বিশেষত্ব

প্রতেক্যের জন্য আলাদা ৷ ছোটদের কাছে দিনটি খুবই আনন্দের, কারন সকাল সকাল গায়ে হলুদ মেখে স্নান করে নিজেদের পাঠ্যবই গুলি মায়ের পায়ের কাছে জমা দিয়ে , পড়ার হাত থেকে মাত্র এক দিন ছুটি পেয়ে আত্মহারা হয়ে যায় তারা । তারপর পুজোর অঞ্জলি দিয়ে নানা রঙের শাড়ি পরে ঘুরেবেড়ানো ছোটদের মনে মস্ত স্বাধীনতা বোধ আনে , আর শাড়িটা সামলানো ও আরও বড় চ্যালেঞ্জ ।

কিশোর কিশোরি বা টিন এজের গোড়ায় বা মধ্য গগনে এসে কিন্তু আবার অন্য রকমের সরস্বতী পুজো কাটে I অনেক ক্ষেত্রে প্রথম প্রেমের ও জোয়ার আনে এই দিনটা ৷ রোজকারের স্কুল ইউনিফর্ম ছেড়ে শাড়ির আঁচল উড়িয়ে বা পাঞ্জাবী গায়ে দিয়ে হঠাৎ বসন্তের খোলা হাওয়ায় বিশেষ মানুষটির মনের মতো হয়ে ওঠা টা ও এই দিনটির অন্য আর রকম বৈশিষ্ট্যের মধ্যে পড়ে ৷ভিড় বাড়ছে শপিং মল গুলিতে, সেখানে কিশোর -কিশোরীরা তাদের পছন্দের শাড়ি পাঞ্জাবী কিনতে ব্যস্ত৷ তাই এই দিন টাইবাঙালির ভ্যালেনটাইন্সডে হয়েওঠে ৷

এছাড়াও বিভিন্ন ক্রীড়ানুষ্ঠান ও ইভেন্ট তো থাকেই কোনো না কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে | আর রাত জেগে পাড়ায় প্যান্ডেল সাজানো, ছোট বা বড় যে কোনো পুজোয় পেট পুজোর জন্য লাইন দেওয়া ও বই খাতা সব একটা দিনের জন্য মা সরস্বতীর পায়ে বন্ধক রেখে সারা দিন টো টো কোম্পানি করার মজা হয়তো ছাত্র জীবনের এক নস্ট্যালজিক মূহূর্ত যা বয়সে বড়রা ও হয়তো বার বার ফিরে পেতে চান | তবে এই বছর কিন্তু ২দিন ধরে মা সরস্বতী পুজো হতে পারে তেমন ই নির্দেশ দেওয়া আছে পঞ্জিকায় , ৯ তারিখ বেলা ১১ টা থেকে ১০ তারিখ বেলা ১০.৩০ টা অবধি , তবে কি এবারের পুজোর আনন্দ দ্বিগুন হওয়ার সম্ভাবনা আছে? তাই মাঘ মাসের শুক্লা পঞ্চমীর তিথির প্রস্তুতি এখন ও অবধি ঠাকুর তৈরীর কারিগর দের হাতে থাকলেও ছাত্রদের মন ও তার জন্য অধির অাগ্রহে অপেক্ষা করছে,চলছে তার প্রস্তুতি।বনগাঁ হাইস্কুল মোড় যুবগোষ্ঠীর সরস্বতী পুজো কমিটির এক উদ্যোগতার কথায়,

এবারের পুজোর বাজেট অনেক বেশি, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি থাকছে কার্নিভাল৷ তার প্রস্তুতি চলছে জোরকদমে৷ বনগাঁ পুরসভার উদ্যোগে খেলাঘর ময়দানে এবারের সরস্বতী পুজোর বাজার বসার ব্যাবস্থা হয়েছে,পুরপ্রধান শঙ্কর আঢ্য জানান প্রতি বছর যশোর রোডে এই পুজোর বাজারের জন্য ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়,তার জন্য যানজট এড়াতে এবছর খেলাঘর ময়দানে পুজোর বাজার বসানোর ব্যাবস্থা করা হয়েছে৷

Previous articleরুবি মোড়ের বহুতলে আগুন
Next article“গদ্দার রায় মতুয়া ভোট নেওয়ার জন্য মোদীকে বড়মার ঘরে ঢুকিয়েছিলেন।”জ্যোতিপ্রিয়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here