হিংলি গ্রামে এখানে পড়েছে একের বোমা-

দেশের সময়,বনগাঁ: বুথে দলের এজেন্ট কে বসতে দিচ্ছে না এই অভিযোগ পেয়ে সোমবার ভোটের দিন দুপুরে বনগাঁ দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের হিংলি গ্রামের একটি কেন্দ্রে যান বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুর।

দুস্কৃতিদের তাণ্ডবে চিন্তিত মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুর এবং বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুর- দেশেরসময়

তিনি গিয়ে এজেন্ট কে বসার ব্যবস্থা করে ফিরে আসতেই সেখানে হাজির হয় একদল দুষ্কৃতী । গাড়িতে করে আসা ওই দুষ্কৃতীরা হঠাৎই মুড়ি-মুড়কির মতো বোমা ছুড়তে থাকে । আর এই ঘটনায় সেই সময় সেখানে উপস্থিত একটি টিভি চ্যানেলের ২ সাংবাদিক , একজন পুলিশ কর্মী এবং একজন ভোটার বোমার আঘাতে জখম হন । এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়।

ঘটনাস্থলে ফের ছুটে যান প্রার্থী শান্তনু ঠাকুর।

ভোটাররা আতঙ্কে এলাকা ছেড়ে পালাতে থাকে । ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই বিকেলে ঘটনাস্থলে আসেন রাজ্য পুলিশের আইজি দক্ষিণবঙ্গ ।

তৃণমূল প্রার্থী মমতা বালা ঠাকুর এদিন একটি স্কুটিতে চেপে ভোট দিতে রওনা দেন ঠাকুর বাড়ি থেকে৷ ছবি- পার্থ সারথি নন্দী।

এদিন দুপুরে বনগাঁর পাইকপাড়া এলাকার একটি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ ওঠে । অভিযোগ বিজেপি প্রার্থী কে ভোট দেয়ার জন্য ভোটারদের বলে বাহিনীর কর্মীরা পাশাপাশি ভোট কেন্দ্র থেকে অনেকটা দূরে একটি জায়গায় বসে গল্প করছিলেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কর্মীরা। সেই সময় ওই জওয়ানেরা সেখানে বেধড়ক লাঠিচার্জ করে। এতে উত্তেজনা তৈরি হয় । তারপরে পাল্টা তাড়া করেন স্থানীয় মানুষ।

সোমবার সাত সকালে চায়ে চুমুক দিয়ে, বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মমতা বালা ঠাকুর স্বর্গীয় বড়মা বীণাপাণি দেবীর মর্মর মূর্ত্তিতে প্রণাম করলেন,

অন্য দিকে এই কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুর মূল মন্দিরে তাঁর মা ও স্ত্রীকে সাথে রেখে পূজো দিলেন

প্রায় একই সময়ের ব্যাবধানে একই বুথে ভোট দিলেন বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের এই দুই প্রার্থী। দলের উত্তরীয় পরে ভেতরে ঢুকে পড়েন শান্তনু ঠাকুর । এ ব্যাপারে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ভোট দিয়ে এসে দুজনেই জানান তাঁরা জয়ী হচ্ছেন৷

উল্লেখ্য একই বুথে পাশা পাশি ভোটের লাইনে দীর্ঘক্ষণ এই দুই প্রার্থীকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেলেও কোন সৌজন্য মুলক আলাপ তাঁরা করেন নি ৷এদিন দুপুর পর্যন্ত ইভিএম খারাপ ছিল বেশ কয়েক জায়গায়।

এগুলো বাদ দিলে ভোট শান্তিপূর্ণ বলাযায় । গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে ব্যাপক গোলমাল হয়েছিল । এবারের লোকসভা নির্বাচনে চিত্রটা সম্পূর্ণ বদলে গেছে । কেন্দ্রীয় বাহিনীর তত্ত্বাবধানে এখানে সুষ্ঠুভাবে ভোট হচ্ছে । যাতায়াতের পথে শান্তিপূর্ণ ভোট হবার দৃশ্য দেখা গেছে৷

বনগাঁ ৩নং ওয়ার্ডের একটি শান্তিপূর্ণ বুথ

বাগদার বিধায়ক দুলাল বর জানান কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে এবারে ভোট হওয়ায় এবারে এলাকায় যেভাবে শান্তিপূর্ণ ভোট হচ্ছে গত ৭০ বছরে সেই দৃশ্য দেখা যায়নি।এখন বনগাঁয় কান পাতলে সর্বত্র শোনা যাচ্ছে দেখা যাক এবার ফল কি হয়!?

Previous articleএক্সপায়ারি প্রাইম মিনিস্টার’‌–এর সঙ্গে আমি কোনও কথা বলব না, মোদীকে পাল্টা মমতার
Next articleসাংসদ হয়েছি ৭বার, পেনসন নিইনি:‌ মমতা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here