দেশেও ঠাঁই হবে না বিজেপির :মমতা

0
666

দেশের সময় ওয়েবডেস্ক:বিগ্রেডে মঞ্চ থেকে মোদি সরকারকে হঠানোর ডাক দিয়ে তৃণমূল নেত্রী বলেছেন স্বাধীনতা আন্দোলনে পথ দেখিয়েছিল বাংলা। দেশে যখনই কোনও বড় বিপদ এসেছে বাংলা পথ দেখিয়েছে। এবারও বাংলাই নেতৃত্ব দেবে। বিজেপিকে উৎখাত করতেই হবে।


ফের পথ দেখাল এবং পথ তৈরি করল সেই বাংলা। তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে আবারও মহাজোটের মঞ্চ তৈরি করে দিল সেই বাংলাই। মমতা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, বকিছুর যেমন একটা এক্সপায়ারি ডেট থাকে। মোদি সরকারেরও এক্সপায়ারি ডেট শেষ হয়ে গিয়েছে। ২০১৯ এ একটাই স্লোগান বদলে দাও। মোদি সরকারকে বদলে দাও। মোদি অমিত শাহ নিজের দলের নেতাদেরও সম্মান করেন না।

প্রয়োজনে তাঁদের ব্যবহার করেন। প্রয়োজন মিটে গেলে তাঁদের ছুড়ে ফেলে দেন। এখন বিপাকে পড়ে দলের সব নেতাদের একজোট হয়ে লড়াইয়ের কথা বলছেন তিনি। অথচ কয়েকদিন আগেও শুধু নিজেদের কথাই ভাবছিলেন তাঁরা। এদিনের ব্রিগেডের মঞ্চ থেকে রীতিমত হুঁশিয়ারি দিয়ে মমতা বলেছেন, যাঁদের তিনি ছাড়েননি, তাঁরা কেন মোদিকে ছাড়বেন। বদল করতেই হবে। এখনও মানুষ যদি বিজেপিকে ভোট দেন তাহলে ব্যাঙ্কে আর একটি টাকাও থাকবে না তাঁদের। সব টাকা তাঁরা লুঠ করে নিয়ে যাবেন।

বিজেপির রথযাত্রাকে আক্রমণ করে মমতা বলেছেন, এতদিন জানতাম জগন্নাথের রথ হয়। এই প্রথম জানলাম বিজেপির রথ। সেটা আসলে পাঁচতারা হোটেল। রথযাত্রার নামে হিংসা ছড়ানো কিছুতেই তিনি বরদাস্ত করবেন না বলে জানিয়েছেন।
লুঠের টাকায় ভোট করছে বিজেপি। একের পর এক সরকারি প্রকল্পের নামে দুর্নীতি চলছে। যে প্রকল্পগুলিতে রাজ্য সরকার টাকা দিচ্ছে সেগুলি নিজেদের ছবি দিয়ে প্রচার করছে কেন্দ্র।

এরকম রাজনীতি আগে কখনও হয়নি বলে অভিযোগ তৃণমূল নেত্রীর। যে মোদির বিরুদ্ধে কথা বলছে তাঁকেই চোর বলা হচ্ছে। এনআরসির নাম করে অসম উত্তরপূর্বে মানুষ নিধন চলছে। সরকারি চাকরি নেই এদিকে সংরক্ষণ চালু করা হচ্ছে বলে অভিযোগ মমতার।

রাজ্যে বিজেপির মোকাবিলায় দলের কর্মীদের বিজেপির সভার পাল্টা সভা করার নির্দেশ দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। তিনি আরও বলেন ‘ইউনাইটেড ইন্ডিয়ার মঞ্চে২৩থেকে ২৬টি

রাজনৈতিক দল অংশ গ্রহণ করেছে৷বিজেপি দাঙ্গায় ব্যস্ত।সিবিআইয়ে ধস,অর্থনীতিতে ধস, শুধু বিজেপি বস ।দেশকে লুঠ করেছে এই সরকার৷ দুর্নীতি করে চলেছে৷

একাধিক প্রকল্পের নামে দুর্নীতি চলছে৷ এরকম হিটলালের কায়দায় কেউ শাসন করেননি৷বদল দো বদল দো,দিল্লিকা সরকার বদল দো৷

Previous articleব্রিগেডে পৌঁছানোর আগেই টুইট মমতার
Next article“পারো যদি দেখে যেও বেঁচে থাকা কাকে বলে…”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here