দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ তিনদিন ধরে অশান্ত দিল্লি। সংঘর্ষে মৃত ১০ জন। আর এই অশান্তির ঘটনায় মঙ্গলবার গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভুবনেশ্বর যাওয়ার পথে কলকাতা বিমানবন্দরে দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। সেখানেই সবাইকে শান্তি বজায় রাখতে বার্তা দিলেন।


মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, ‘‌আমি মনে করি, শান্তি বজায় রাখা সকলের দরকার। আমাদের দেশ শান্তির দেশ, মানবতার দেশ। সকলকে নিয়ে একসঙ্গে চলার দেশ। এখানে হিংসার কোনও স্থান নেই। যা ঘটছে, তাতে খুবই উদ্বিগ্ন। জানি না কী হচ্ছে! সকলকে শান্তি বজায় রাখার আর্জি জানাচ্ছি। পরিস্থিতির উপর নজর রাখছি।’‌ নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতায় বরাবরই সোচ্চার হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রথম থেকেই এই আইনের বিরুদ্ধে মুখ খুলে কেন্দ্রের সমালোচনা করেছেন তিনি।

এদিকে, অশান্তির আগুনে জ্বলছে দিল্লি। সোমবারের পর মঙ্গলবারও উত্তপ্ত রাজধানী। উত্তর–পূর্ব দিল্লির খাজুরি খাস এলাকায় এদিন নতুন করে পাথর ছোড়ার অভিযোগ উঠেছে। ওই এলাকায় পুলিশ ও র‌্যাফ মোতায়েন করা হয়েছে। জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা।


তবে মমতা উদ্বেগ প্রকাশ করার পর, তাঁর উদ্দেশে টিপন্নি করতে ছাড়েননি বিজেপি নেতারা। দলের এক মুখপাত্র বলেন, অশান্তির ঘটনা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী যে উদ্বিগ্ন– এটা ভাল কথা। নইলে নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের পর বাংলায় টানা তিন দিন ধরে যে তাণ্ডব চলেছিল, ট্রেনে পাথর ছোঁড়া, স্টেশনে আগুন লাগানোর পরেও পুলিশ যে রকম নিষ্ক্রিয় ছিল, তাতে সন্দেহ হচ্ছিল বাংলায় বুঝি এতো কিছুর পরেও মানুষের জীবন নিয়ে শাসক উদ্বিগ্ন হয় না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here