দেশের সময়: করোনা পরিস্থিতিতে অক্সিজেনের সংকট মেটাতে নিজের বাড়িতেই বিনামূল্যে অক্সিজেন পার্লারের পরিষেবা চালু করলেন রাজ্য যুব তৃনমূলের সাধারণ সম্পাদক সম্রাট তাপাদার।

করোনার দ্বিতীয় ঢুকে আক্রান্ত সংখ্যা আগের তুলনায় বহুগুণ বেশি। এই পরিস্থিতিতে রোগীদের মধ্যে অক্সিজেনের প্রয়োজন হচ্ছে অনেক বেশি। স্বাভাবিকভাবেই অনেক ক্ষেত্রে অক্সিজেন এর সংকট দেখা দিচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে এগিয়ে এলেন রাজ্য যুব তৃনমূলের সাধারণ সম্পাদক সম্রাট তফাদার। রবিবার ব্যারাকপুরে নিজের বাসভবনের কাছে নন্দিনী ভিলায় চালু করলেন অক্সিজেন পার্লার।

করোনা রোগীদের মধ্যে যাদের অক্সিজেন প্রয়োজন, তাঁরা ২৪ ঘন্টার মধ্যে যেকোনো সময় এই পার্লারে এসে বিনামূল্যে অক্সিজেন পরিষেবা পাবেন। পাশাপাশি, টোটো সার্ভিস, ওষুধ, স্যানিটাইজার এর ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে। এদিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ব্যারাকপুরের বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী, ব্যারাকপুরের নগরপাল মনোজ ভার্মা, টিটাগড় থানার ইন্সপেক্টর ইন চার্জ অনিমেষ সিংহ রায়, ছাত্র নেতা নাজমুল ইসলাম, যুবনেতা বিষ্টু সিং সহ অন্যান্য শুভানুধ্যায়ীরা।

এর পাশাপাশি, ব্যারাকপুর অঞ্চলে কর্মরত প্রয়াত সাংবাদিক অলোক কুমার ঘোষের একমাত্র মেয়ের পড়াশুনার সব দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিলেন সম্রাট তপাদার। এব্যাপারে তিনি বলেন, ‘আমার নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায়, করোনার এই ভয়াবহতায় আমরা সবাই মানব সেবায় ব্রতী হয়েছি। তারই অঙ্গ হিসেবে আজ আমার ব্যক্তিগত উদ্যোগে, করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য সম্পূর্ণ নিখরচায়, ২৪ ঘন্টার অক্সিজেন পার্লার, টোটো সার্ভিস, ওষুধ পরিষেবা, স্যানিটাইজেশনের ব্যবস্থা চালু করা হল।’

গাইঘাটা ব্লক কোভিড কেয়ার সেন্টারের উদ্যোগে সোমবার ঠাকুরনগরে অক্সিজেন পার্লার উদ্বোধন হল। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গাইঘাটা থানার ওসি বলাই ঘোষ, গাইঘাটা ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ সুজন গাইন সহ বিশিষ্টজনেরা। পাশাপাশি কিছু দুস্থ নাগরিকের হাতে রেশন‌ সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়। উদ্যোক্তাদের পক্ষে আশিস বিশ্বাস জানান, নন কোভিড পেশেন্ট অথচ অক্সিজেন লেভেল কম, তাদেরকে এই পার্লার থেকে অক্সিজেন পরিষেবা দেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here