দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ আবহাওয়াবিদদের পূর্বাভাস মতো গভীর নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে ইয়াস। হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস, এর পর উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমে এগোতে থাকবে এই ঘূর্ণিঝড়। সোমবার রাতের মধ্যে আরও শক্তি বাড়াবে ইয়াস। বুধবার স্থলভাগে আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড়। এমনটাই পূর্বাভাস দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে। উপগ্রহ চিত্র দেখে সকাল ৯ টার সময়ে তা সরকারি ভাবে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।
বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া ওই গভীর নিম্নচাপ রবিবার বিকেলের পর থেকে পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িশা উপকূলের দিকে আরও এগিয়েছে। দিঘা থেকে তা এখন ৬০০ কিলোমিটারের সামান্য বেশি দূরে। ওড়িশার পারাদ্বীপ উপকূল থেকে গভীর নিম্নচাপের দূরত্ব এখন প্রায় ৫৫০ কিলোমিটার।

গত ৬ ঘণ্টায় বঙ্গোপসাগরের পূর্ব-মধ্য উপকূলে শক্তি বৃদ্ধি করেছে এই ঘূর্ণিঝড়। পোর্ট ব্লেয়ার থেকে বর্তমানে ৬০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে ইয়াস। দিঘা থেকে ৬৩০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে। পারাদ্বীপ থেকে রয়েছে ৫৪০ কিলোমিটার দূরে।

কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর বলেছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় আরও শক্তি বৃদ্ধি করবে ইয়াস। তার পরের ২৪ ঘণ্টায় আরও শক্তিশালী রূপ নিয়ে আছড়ে পড়বে স্থলভাগে। পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপ ও ওড়িশার পারাদ্বীপের মধ্যে দিয়ে ঘূর্ণিঝড়ের স্থলভাগে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলেই জানিয়েছে হওয়া অফিস।

আবহাওয়া দফতর জানিয়েছিল, আজ সোমবার সকালেই সেই গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। তার পর আরও ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তা অতি তীব্র ঘূর্ণিঝড়ের চেহারা নেবে।


গভীর নিম্নচাপের প্রভাবে দুই ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় সোমবার হাল্কা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হওয়ার পূর্বাভাস রয়েছে। সেই সঙ্গে বিকেলের পর থেকে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। ঝড়ের গতি হতে পারে ঘণ্টায় ৪০-৫০ কিলোমিটার। এই ঝড়ের গতিই মঙ্গলবার বিকেলের পর থেকে বেড়ে ঘণ্টায় ৭০ থেকে ৮০ কিলোমিটার হতে পারে। তার পর তা ক্রমশই বাড়তে থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here