Cyclone Michaung landfall : অন্ধ্রপ্রদেশে আছড়ে পড়ল ঘূর্ণিঝড় মিগজাউম, ল্যান্ডফলের আগেই ৮ জনের মৃত্যু, সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ৯৫০০ মানুষকে

0
163

স্থলভাগে আছড়ে পড়ল ঘূর্ণিঝড় মিগজাউম। অন্ধ্রপ্রদেশের নেল্লোর এবং মছলিপত্তনমের মাঝে বাপাটলা উপকূলে ঝড়ের ল্যান্ডফল।

ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়ার আগেই ৮ জনের মৃত্যু ঘটেছে খবর। প্রবল বৃষ্টিতে তামিলনাড়ুতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হল। মিগজাউম আছড়ে পড়ার আগেই টানা বৃষ্টিতে জলমগ্ন অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, পুদুচেরির বিস্তীর্ণ এলাকা। তেলঙ্গানা ও ওড়িশাকেও সতর্ক থাকতে নির্দেশ নির্দেশ আবহাওয়া দফতরের। 

দেশের সময় ওয়েবডেস্ক: অন্ধ্রপ্রদেশে আছড়ে পড়ল ঘূর্ণিঝড় মিগজাউম। মঙ্গলবার দুপুর নাগাদ অন্ধ্রপ্রদেশের বাপটলার নিকটবর্তী নেলোর এবং মাছিলিপত্তনমের মধ্যে ল্যান্ডফল করে ঝড়টি। এর জেরে গত কয়েক ঘন্টায় অন্ধ্রপ্রদেশ, পুদুচেরি এবং তামিলনাড়ুর বেশ কিছু জায়গায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে।

ঘন্টায় ৯০ থেকে ১০০ কিমি বেগে আছড়ে পড়েছে এই ঘূর্ণিঝড়। এর সর্বোচ্চ গতিবেগ হতে পারে ঘণ্টায় ১১০ কিমি।  আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে ল্যান্ডফল প্রক্রিয়া চলবে। ভয়াবহ তীব্রতা নিয়ে আছড়ে পড়েছে ঝড়। জনজীবন কার্যত বিপর্যস্ত। অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার আগেভাগেই আটটি জেলায় সতর্কতা জারি করেছে। তিরুপতি, নেলোর, প্রকাশম, বাপটলা, কৃষ্ণা, পশ্চিম গোদাবরী, কোনসিমা এবং কাকিনাদায় সকলকে সতর্ক থাকতে অনুরোধ করা হয়েছে। পুদুচেরির, উপকূলীয় অঞ্চলে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। বাড়ির বাইরে বেরতেই বারণ করা হয়েছে প্রশাসনের তরফে। 

কার্যত নদীতে পরিণত হয়েছে রাস্তাঘাট। প্রায় ৯৫০০ মানুষকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ১১০ কিলোমিটার বেগে হাওয়া বইছে। প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে চলবে ল্যান্ডফল প্রক্রিয়া। চেন্নাইতে ইতিমধ্যেই মৃত্যু হয়েছে আটজনের। বাতিল করা হয়েছে বেশ কিছু ট্রেন এবং বিমান।

মৌসম ভবন আগেই জানিয়েছিল, মঙ্গলবার দুপুরে এই ঘূর্ণিঝড় শক্তি বাড়িয়ে আঘাত হানবে দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলে। ল্যান্ডফলের সময় ঘূর্ণিঝড়ের গতিবেগ ঘণ্টায় ৯০ থেকে ১০০ কিলোমিটার হতে পারে বলেও জানানো হয়েছিল। রবিবার থেকেই চেন্নাই, চেঙ্গালপেট, কাঞ্চিপুরম, তিরুভাল্লুর সহ একাধিক জায়গায় ভারী বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে একপ্রকার বিপর্যস্ত চেন্নাই।

সরকারি আধিকারিকদের পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য সবরকমভাবে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। ইতিমধ্যে নিচু এলাকাগুলি থেকে সাধারণ মানুষকে সরিয়ে নিয়েছে প্রশাসণ। তাঁদের থাকার জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছে প্রায় ৩০০টি ত্রাণ শিবিরের।

ল্যান্ডফলের আগেই প্রবল বৃষ্টিতে তামিলনাড়ুতে ঘূর্ণিঝড় ‘মিগজাউমে’-র প্রভাবে 8 জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্ট্যালিন জানিয়েছেন, এ বারের বৃষ্টি ইতিমধ্যেই ২০১৫ সালের রেকর্ড ছাপিয়ে গিয়েছে৷ তামিলনাড়ু জুড়ে একাধিক জায়গায় বন্যা পরিস্থিতির আশঙ্কা করা হচ্ছে বলে সূত্রের খবর৷

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সোমবার তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ এবং পুদুচেরির মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন।  কেন্দ্র থেকে প্রয়োজনীয় সমস্ত সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন। কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে, পর্যাপ্ত জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। 

দক্ষিণ চেন্নাইয়ের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত। প্রশাসন সূত্রে খবর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে ২ দিন সময় লাগবে। অন্ধ্রপ্রদেশের দিকে মিগজ়াউম সরে যাবার পর যদিও ঝকঝকে রোদ চেন্নাইতে। লোকালয়ের জল ধীরে ধীরে কমছে। মঙ্গলবার সন্ধে বা রাতের মধ্যে শহর স্বাভাবিক হয়ে যাবে। তবে শহরতলিতে জল নামতে অন্তত আরও ২ দিন সময় লাগবে। এখনও চেন্নাই শহরের ৭০ শতাংশ এলাকা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন এবং নেট সংযোগও খুবই দুর্বল।

এদিকে, মিগজাউমের প্রভাব পড়েছে দক্ষিণবঙ্গেও। মঙ্গলবার সকাল থেকেই আকাশ মেঘলা বঙ্গে। বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা, মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে ১১টি জেলায়। বেশি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, বাঁকুড়া ও কলকাতায়। 

বুধবার ও বৃহস্পতিবার বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, পূর্ব বর্ধমান ও নদিয়ায়। বৃষ্টির সঙ্গে দমকা ঝোড়ো হওয়া বইতে পারে উপকূলের জেলাগুলিতে। শুক্রবার থেকে আবহাওয়ার পরিবর্তন হবে। শনিবার থেকে নামতে পারে তাপমাত্রা। 

Previous articleCyclone Michaung Update: শক্তি বাড়িয়ে উত্তর দিকে এগোচ্ছে ‘মিগজাউম’ ! এদিকে শীতের দেখা নেই কলকাতায় ! কী জানাচ্ছে হাওয়া অফিস
Next articleKolkata International Film Festival: বাংলায় এসে ছবি বানাও, মুখ্যমন্ত্রীর অনুরোধে বাধ্য ছেলের মতো ঘাড় নেড়ে সম্মতি সলমানের

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here