রেল সূত্রে খবর, সাধারণ মানু্ষের যাতায়াতের সুবিধের জন্য তৈরি হবে ভূগর্ভস্থ পথ। শিয়ালদহ–বনগাঁ শাখার ১২ নং রেলেগেটের কাছে রেললাইন তুলে কাজ সারতে হবে। সেকারণে আগামী রবিবার অর্থাৎ ১৬‌ ডিসেম্বর বন্ধ থাকবে ট্রেন চলাচল। শনিবার মধ্যরাত থেকে বন্ধ হওয়া ট্রেন চলাচল শুরু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে সোমবার সকাল থেকে। রেল সূত্রে খবর, ওইদিন মধ্যমগ্রাম থেকে বারাসাত পর্যন্ত কোনও ট্রেনই চলাচল করবে না। যেহেতু সারাদিন ধরেই কাজ চলবে, তাই শিয়ালদহ থেকে মধ্যমগ্রাম এবং অপরদিকে বারাসাত থেকে বনগাঁ এবং বারাসাত–হাসনাবাদ শাখায় কিছু সংখ্যক ট্রেন চালানো হবে। যদিও অন্যান্য রবিবারের তুলনায় যা সংখ্যায় অনেক কম হবে। রবিবার অফিসযাত্রীদের ভিড় কম থাকলেও সাধারণ যাত্রী নেহাত কম থাকে না। ফলে তাঁদের চরম দুর্ভোগের মধ্যে পড়তে হবে বলে মনে করা হচ্ছে। মধ্যমগ্রাম থেকে বারাসাত ট্রেন না চললে অনেকেই সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। এছাড়া শিয়ালদহ থেকে যাঁরা বারাসাত বা তার পরের কোনও স্টেশনে যাবেন অথবা একইভাবে বনগাঁ বা হাসনাবাদের দিক থেকে যাঁরা মধ্যমগ্রাম বা শিয়ালদহ–এর দিকে আসবেন তাঁদের দুর্ভোগ পোহাতে হবে। আর সেকারণে ইতিমধ্যে রেলের তরফ থেকে বারেবারে ঘোষণা করে ট্রেন বন্ধের কথা সাধারণ মানুষকে জানানো হচ্ছে। পাশাপাশি মধ্যমগ্রাম স্টেশন থেকে বারাসাত স্টেশনে যাতায়াতের জন্য যথেষ্ট সংখ্যক বিকল্প পরিবহণের ব্যবস্থাও করছে প্রশাসন। যাত্রীদের যাতে কোনওরকম অসুবিধার সম্মুখীন না হতে হয় সেজন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা করার চেষ্টা করছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এক নিত্য রেল যাত্রী বিশ্বনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,রবিবার ছুটির দিন হলেও অনেকেই বাড়ী ফেরেন ,বা ঘুরতে যান ,বিশেষ করে বেশির ভাগ রোগী এদিন ডাক্তার দেখাতে যান৷ তারা সমস্যায় পড়বেন, যদিত্ত আগাম রেল কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে বার বার ঘোষণা করে সচেতন করায় অনেকটাই সুবিধা হচ্ছে৷

সাধারণ মানু্ষের যাতায়াতের সুবিধের জন্য তৈরি হবে ভূগর্ভস্থ পথ। শিয়ালদহ–বনগাঁ শাখার ১২ নং রেলেগেটের কাছে রেললাইন তুলে কাজ সারতে হবে। সেকারণে আগামী রবিবার অর্থাৎ ১৬‌ ডিসেম্বর বন্ধ থাকবে ট্রেন চলাচল। শনিবার মধ্যরাত থেকে বন্ধ হওয়া ট্রেন চলাচল শুরু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে সোমবার সকাল থেকে। রেল সূত্রে খবর, ওইদিন মধ্যমগ্রাম থেকে বারাসাত পর্যন্ত কোনও ট্রেনই চলাচল করবে না। যেহেতু সারাদিন ধরেই কাজ চলবে, তাই শিয়ালদহ থেকে মধ্যমগ্রাম এবং অপরদিকে বারাসাত থেকে বনগাঁ এবং বারাসাত–হাসনাবাদ শাখায় কিছু সংখ্যক ট্রেন চালানো হবে। যদিও অন্যান্য রবিবারের তুলনায় যা সংখ্যায় অনেক কম হবে। রবিবার অফিসযাত্রীদের ভিড় কম থাকলেও সাধারণ যাত্রী নেহাত কম থাকে না। ফলে তাঁদের চরম দুর্ভোগের মধ্যে পড়তে হবে বলে মনে করা হচ্ছে। মধ্যমগ্রাম থেকে বারাসাত ট্রেন না চললে অনেকেই সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। এছাড়া শিয়ালদহ থেকে যাঁরা বারাসাত বা তার পরের কোনও স্টেশনে যাবেন অথবা একইভাবে বনগাঁ বা হাসনাবাদের দিক থেকে যাঁরা মধ্যমগ্রাম বা শিয়ালদহ–এর দিকে আসবেন তাঁদের দুর্ভোগ পোহাতে হবে। আর সেকারণে ইতিমধ্যে রেলের তরফ থেকে বারেবারে ঘোষণা করে ট্রেন বন্ধের কথা সাধারণ মানুষকে জানানো হচ্ছে। পাশাপাশি মধ্যমগ্রাম স্টেশন থেকে বারাসাত স্টেশনে যাতায়াতের জন্য যথেষ্ট সংখ্যক বিকল্প পরিবহণের ব্যবস্থাও করছে প্রশাসন। যাত্রীদের যাতে কোনওরকম অসুবিধার সম্মুখীন না হতে হয় সেজন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা করার চেষ্টা করছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এক নিত্য রেল যাত্রী বিশ্বনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,রবিবার ছুটির দিন হলেও অনেকেই বাড়ী ফেরেন ,বা ঘুরতে যান ,বিশেষ করে বেশির ভাগ রোগী এদিন ডাক্তার দেখাতে যান৷ তারা সমস্যায় পড়বেন, যদিত্ত আগাম রেল কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে বার বার ঘোষণা করে সচেতন করায় অনেকটাই সুবিধা হচ্ছে৷

Previous articleকংগ্রেসের বিরোধীতা করলেও সাংবাদিক সন্মেলনে চমক দিলেন মায়াবতী, কি বলছেন তিনি?
Next articleলস্কর জঙ্গি শেখ সামির দেশদ্রোহিতায় দোষি সাব্যস্ত,শনিবার রায় ঘোষণা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here