বিসর্জনের সুর ইছামতীর তীরে

0
781

নীলাদ্রি ভৌমিক : দেশের সময়: বাঙালির সেরা উৎসব এখন শেষ লগ্নে উপস্থিত। নির্ঘন্ট মেনে আজ বাপের বাড়িতে পুত্র-কন্যা সহ চারদিন কাটিয়ে কৈলাসে ফিরবেন উমা। শারোদৎসবের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি হল বিজয়া। এদিন বনেদি বাড়ির পুজোয় নিয়ম মেনে, কনকাঞ্জলি, দর্পণ বিসর্জনের পর একে অপরের মঙ্গল কামনায় সিঁদুর খেলায় মাতালেন বিবাহিতা মহিলারা। অন্যদিকে, বারোয়ারি পুজোগুলিতে দর্পণ বিসর্জন এবং সিঁদুর খেলা হলেও, উত্তর ২৪ পরগনার সিংহভাগই প্রতিমা নিরঞ্জন করবে রাববার ও সোমবার। বনগাঁ শহরে অনুষ্ঠিত হবে প্রতিমা. সহ কার্নিভাল। ছয়ঘরিয়ার নাওভাঙা নদীতে বিসর্জনের সুবিধার্থে পঞ্চায়েত ও প্রশাসন থেকে সবরকম ব্যবস্থা করা হয়েছে। বসিরহাটের টাকিতে সকাল থেকেই ভাসান দেখতে হাজির বিভিন্ন প্রান্তের উৎসুক মানুষরা। নামে দশমী হলেও, মন্ডপে মন্ডপে আট থেকে আশি বয়সের সকলেই হাজির।বিসর্জনের বাজনা… ঠাকুর থাকবে কতক্ষণ, ঠাকুর হবে বিসর্জন। এই চিরায়ত ঢাকের বোলের অপেক্ষায় জেলাবাসী। সিঁদুর খেলা, থেকে বিজয়ার প্রীতি সম্মেলনে ব্যস্ত প্রতিটি ঘরে ঘরে মা ও বোনেরা। এবার শারোদৎসবে জেলা পুলিশ প্রশাসনের ভূমিকা এক কথায় নতুন নজির পরিষেবা প্রদানের সাক্ষ্য বহন করেছে ৷ প্রতিমা নিরঞ্জনে যাতে কোনও রকম প্রতিবন্ধকতা না থাকে, তার জন্য বনগাঁর নাওভাঙা নদী থেকে বসিরহাটের টাকিতে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর সহ প্রশাসন সব রকম জরুরি ব্যবস্থা সম্পন্ন করেছে । এই প্রথম বনগাঁ শহরে পুরসভার উদ্যোগে শহরের প্রতিমা নিয়ে এক কার্নিভালের আয়োজন নতুন মাত্রা যোগ করেছে। আগমী সোমবার সেই দৃশ্য উপভোগ করতে পারবেন জেলাবাসী। একই সঙ্গে টাকিতে প্রশাসনিক নিরাপত্তার বেষ্টনীতে শুক্রবার প্রতিমা নিরঞ্জনে দর্শনার্থীদের সুবিধার্থে সব রকমের ব্যবস্থা করা হয়েছে। কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে ইছামতীর তীর থেকে ভেসে আসছে বিসর্জনের সুর ৷ দেশের সময়:

Previous article“নবমী নিশিতে জনস্রোতে ভাসল,উৎসবের শহর বনগাঁ”
Next articleবিজয়াতে,চন্দ্রচুঁড় দই আর কাঁচাগোল্লা অপরিহার্য বনগাঁয়৷ সোমনাথ মজুমদার-

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here