দেশের সময়,দিল্লি: কুর্সিতে বসেই করের টাকা হস্তান্তর নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিলেন তৃতীয় মোদী সরকারের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। রাজ্যগুলিকে যা অবিলম্বে দিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। সবচেয়ে বেশি টাকা পাচ্ছে উত্তর প্রদেশ। তুলনায় বাংলার ভাগে জুটছে অনেকটাই কম অর্থ। যা নিয়ে শুরু হয়ে গিয়েছে রাজনৈতিক তরজা।

কেন্দ্রে নতুন সরকার গঠনের পর পরই পশ্চিমবঙ্গের জন্য বরাদ্দ হল ১০ হাজার ৫১৩ কোটি টাকা। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন এই কথা জানিয়েছেন।

এবার অন্তবর্তী বাজেটে জানানো হয়েছিল যে কেন্দ্রের আদায় করা কর থেকে রাজ্যগুলো যে অংশ পাবে তার আনুমানিক পরিমাণ হবে ১২ লক্ষ ১৯ হাজার কোটি টাকা। তারই একটি অংশ জুন মাসে রিলিজ করল নর্থ ব্লক। 

কেন্দ্রের সরকার কর বাবদ রাজ্যগুলি থেকেও আদায় করে। অর্থ কমিশনের সুপারিশ অনুযায়ী আদায় করা সেই মোট রাজস্বের ৪১ শতাংশ অর্থ রাজ্যগুলির পাওয়া উচিত। কারণ, রাজ্য থেকেই এই কর আদায় করা হয়েছে। অর্থাৎ এটা কেন্দ্রের কোনও অনুদান নয়। রাজ্যেরই অধিকারের অর্থ।

লোকসভা ভোটের পর মঙ্গলবার প্রথম প্রশাসনিক বৈঠক ডেকেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার আগে এক লপ্তে কেন্দ্র থেকে ১০ হাজার কোটি টাকা আসার খবর মন্দ নয়। 

এখন কৌতূহলের ব্যাপার হল, এই ১০ হাজার কোটি টাকা রাজ্য সরকার কোন খাতে ব্যবহার করবে?

পূর্বতন যোজনা কমিশন তথা এখনকার নীতি আয়োগের বক্তব্য হল, এই টাকা রাজ্য সরকার নিজের ইচ্ছে মতো মূলধন খাতে বা সামাজিক প্রকল্প খাতে ব্যবহার করতে পারে। সেটা রাজ্যের অগ্রাধিকারের বিষয়। অর্থাৎ এই টাকা দিয়ে রাজ্য সরকার চাইলে রাস্তা, সেতু বানাতে পারে আবার সামাজিক কল্যাণ প্রকল্পেও ব্যবহার করতে পারে।

কেন্দ্র এবার যে করের টাকা বরাদ্দ করেছে তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ পেয়েছে উত্তরপ্রদেশ। হিন্দিবলয়ের এই রাজ্য সবচেয়ে বড়, জনসংখ্যাও সর্বাধিক। তাই স্বাভাবিক ভাবে কর আদায়ের পরিমাণও বেশি। উত্তরপ্রদেশ পেয়েছে ২৫ হাজার কোটি টাকা। আর বিহার পেয়েছে ১৪ হাজার কোটি টাকা। এনডিএ-র শরিক তেলুগু দেশমের অন্ধ্রপ্রদেশ পেয়েছে সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা।

প্রসঙ্গত, লোকসভা ভোটের আগে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে অন্তর্বর্তীকালীন বাজেট পেশ করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। সেখানেই কর হস্তান্তর বাবদ রাজ্যগুলিকে মোট ১২ লাখ  ১৯ হাজার  ৭৮৩কোটি টাকা দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করেছিলেন তিনি। যা বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পে খরচ করতে পারবে রাজ্য সরকার।

সোমবার টাকা হস্তান্তর নিয়ে জারি করা বিবৃতিতে অর্থ মন্ত্রক জানিয়েছে, আগামী দিনে নিয়মিত ব্যবধানে রাজ্যগুলিকে দেওয়া হবে এই টাকা। শুধু তাই নয়, কর বাবদ মিলবে অতিরিক্ত কিস্তির টাকা। যদিও কবে নাগাদ সেই অর্থ দেওয়া হবে, তা স্পষ্ট করেনি কেন্দ্র।

অন্যান্য রাজ্যগুলির মধ্যে মহারাষ্ট্র, রাজস্থান, ওডিশা ও তামিল নাডুকে কর বাবদ যথাক্রমে ৮,৮২8৮. ০৮ কোটি, ৮,8২১.৩৮কোটি, ৬,৩ ২৭.৯২কোটি ও ৫,৭০০.৪৪কোটি টাকা হস্তান্তর করবে কেন্দ্র। এছাড়া ৫,৬৫৫.৭২ কোটি টাকা পাচ্ছে অন্ধ্র প্রদেশ। আর গুজরাটকে দেওয়া হবে ৪,৮৬০.৫৬ কোটি টাকা।

কর হস্তান্তরে সবচেয়ে কম টাকা পাচ্ছে সিকিম। উত্তর পূর্বের রাজ্যটিকে ৫৪২. ২২ কোটি টাকা দেবে কেন্দ্র। মিজোরাম, নাগাল্যান্ড ও ত্রিপুরা পাচ্ছে ৬৯৮.৭৮ কোটি, ৭৯৫.২০ কোটি ও ৯৮৯.৪৪ কোটি টাকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here