দেশের সময় : সর্বভারতীয় মেডিক্যাল প্রবেশিকা নিট-এ অনিয়মের অভিযোগ নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে গোটা দেশ জুড়ে। এ বার এই বিষয়ে জাতীয় পরীক্ষা নিয়ামক সংস্থা (ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি বা এনটিএ)-কে নোটিস দিয়ে জবাব তলব করল সুপ্রিম কোর্ট। নিট বাতিল করতে চেয়ে সুপ্রিম কোর্টে একাধিক মামলা দায়ের হয়েছে। তেমনই একটি মামলার শুনানি ছিল মঙ্গলবার, শীর্ষ আদালতের বিচারপতি বিক্রম নাথ এবং আহসানুদ্দিন আমানুল্লার অবকাশকালীন বেঞ্চে।

নিট ২০২৪ পরীক্ষার ইতিহাসে এই প্রথম ৬৭ জন পরীক্ষার্থীর ফুল মার্কস পাওয়া নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট জবাব চাইল। মঙ্গলবার কেন্দ্র এবং পরীক্ষক সংস্থা ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সিকে এই মর্মে জবাবদিহি তলব করেছে শীর্ষ আদালত। পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের একাংশের অভিযোগ, নিট পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে। তা না হলে এরকম ফল হতে পারে না।

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি বিক্রম নাথ এবং আশানুদ্দিন আমানুল্লার বেঞ্চ বলেছে, এই পরীক্ষায় স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। আমরা এর উত্তর চাই। যদিও পরীক্ষায় পাশ করা পরীক্ষার্থীদের কাউন্সেলিংয়ের উপর স্থগিতাদেশ জারি করার আবেদন গ্রহণ করেনি বেঞ্চ। অর্থাৎ নির্দিষ্ট সময়েই শুরু হচ্ছে কাউন্সেলিং প্রক্রিয়া।

বেঞ্চ বলেছে, কাউন্সেলিং শুরু হোক। আমরা কাউন্সেলিং থামাচ্ছি না। প্রবীণ কৌঁসুলি ম্যাথুউজ জে নেদুমপারা আবেদন করেছিলেন যাতে ফয়সালা না হওয়া পর্যন্ত কাউন্সেলিংয়ের উপর স্থগিতাদেশ জারি করে আদালত। তার জবাবে বিচারপতি নাথ ওই জবাব দেন।

বিচারপতি আমানুল্লা এনটিএ-র কৌঁসুলিকে বলেন, আপনারা যেহেতু পরীক্ষক সংস্থা সেহেতু এর স্বচ্ছতার প্রশ্নটি খুব সহজ বিষয় নয়। আমরা এ ব্যাপারে আপনার জবাব চাই। পরীক্ষার স্বচ্ছতা প্রভাবিত হয়েছে কিনা, তার উত্তর দিন। বেঞ্চ আরও বলেছে, গ্রীষ্মাবকাশের পর আদালত খোলার পর দ্রুত এই মামলার পরবর্তী শুনানি স্থির করা হবে। যদি উত্তর দিতে দেরি হয়, তাহলে আদালত কাউন্সেলিং প্রক্রিয়াও থামিয়ে দেবে।

প্রসঙ্গত, ছাত্রছাত্রীদের একাংশ একটি নতুন আবেদন করে আদালতে। গত ৫ মে নেওয়া নিট পরীক্ষার স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। তাদের দাবি, প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে। তাই পাশ করা পরীক্ষার্থীদের কাউন্সেলিং অবিলম্বে বন্ধ করার নির্দেশ দিক আদালত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here