সৃজিতা শীল

দেশের সময়: মঙ্গলবার দিন উত্তর কলকাতায় বিজেপির প্রার্থী তাপস রায়ের সমর্থনে শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোড় থেকে স্বামী বিবেকানন্দর বাড়ি পর্যন্ত রোড–শো করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর ঠিক তারপরই  বুধবার দুপুরে ওই একই পথে রোড–শো করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তফাতটা তাহলে কোথায়?‌

এবার সেটাই দেখল গোটা বাংলা। যা বাংলার মানুষ মনে রাখবেন। তফাতটা দেখা গেল ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে বদলে গেল ছবিটা। মঙ্গলবার সন্ধেয় উত্তর কলকাতায় বিজেপির প্রার্থী তাপস রায়ের সমর্থনে শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোড় থেকে স্বামী বিবেকানন্দর বাড়ি পর্যন্ত রোড শো করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।

২৪ ঘণ্টারও কম ব্যাবধানে, বুধবার দুপুরে ওই একই পথে রোড শো করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

হুডখোলা জিপে রোড শো করেছিলেন মোদী। বুধবার দুপুর সাড়ে তিনটে নাগাদ পায়ে হেঁটে শ্যামবাজার থেকে সিমলা স্ট্রিটে বিবেকানন্দর বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। মঙ্গলবার মোদীর সভাকে ঘিরে শ্যামবাজারে যেমন মানুষের উচ্ছ্বাস চোখে পড়েছিল, বুধবার সেই একই ছবি ধরা পড়ল মমতার রোড শো তেও।

কারও কারও মতে, মঙ্গলবারের ভিড়কেও বুধবার ছাপিয়ে গিয়েছে। রাস্তার দু’ধারে মানুষের জমায়েত। ট্রাম লাইনের ওপরে হনহনিয়ে হেঁটে চলেছেন তৃণমূল নেত্রী। আগে থেকেই রাস্তার দু’ধারে ব্যারিকেড তৈরি ছিল। সেই ব্যারিকেড টপকে অনেককে মমতার কাছে চলে আসতে দেখা যায়। অনেক সময় আবার তৃণমূল নেত্রীকেও দেখা গিয়েছে ব্যারিকেডের দিকে এগিয়ে যেতে। 

বস্তুত, এর আগে এদিন বারুইপুরে সভা করেন মমতা। যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত বারুইপুরে বুধবার অবশ্য মমতার কোনও সভা করার কথা ছিল না। নিজেই সেকথা জানিয়ে বারুইপুরের মঞ্চ থেকে তৃণমূল নেত্রী বলেন, ‘‘আজ আমার এখানে সভা করার কথা ছিল না। তবে পরে মনে হল, বিজেপির এবং মোদীর মিথ্যাচারের জবাব দেওয়ার প্রয়োজন আছে। তাই এসেছি। ক্ষমতা থাকলে চ্যালেঞ্জ করুক বিজেপি।’’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here