দেশের সময় , বনগাঁ: ২১ ফেব্রুয়ারি, আন্তর্জাতিক ভাষা দিবস।

নাওভাঙা এবং পেট্রাপোল এক্সপোর্ট ইমপোর্ট ওয়েল ফেযার অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে ২১-র সন্ধ্যায় আয়োজিত হয়ে গেল বাংলা ভাষা উৎসব। 

কালুপুর যশোর রোডের পাশে রাজস্থান মার্বেলের সামনে শতাব্দী প্রাচীন গাছের ছায়ায়। এবং বনগাঁর বিএসএফ ক্যাম্প-র শহীদবেদীর সামনে সন্ধ্যা ৬টা থেকে শুরু হয় উৎসব। ১৯৫২-র একুশের ভাষা আন্দোলনের শহিদদের স্মরণে হয় গর্বের মোমবাতির মিছিল। বহু শিল্পী যোগ দেন নাচ গান কবিতা কথায়।

সপ্তক মিউজিক স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী সহ বিভিন্ন সংস্থার শিশুশিল্পীরা এদিন নাওভাঙার অনুষ্ঠানে মাতিয়ে তোলে একুশের মঞ্চ। 

অন্যদিকে পেট্রাপোল এক্সপোর্ট ইমপোর্ট ওয়েল ফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজিত বাংলা ভাষা উৎসবে বিএসএফ ক্যাম্প-র শহীদ বেদীতে ও মোমবাতি জ্বালিয়ে পুষ্পস্তবক দিয়ে শহীদদের স্মরণে কবিতা পাঠ,গান ও আলোচনার মাধ্যমে অসংখ্য মানুষ ভাষা উৎসবে সামিল হন৷

অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষে সম্পাদক প্রদীপ দে বলেন , সারাবছর সীমান্ত বাণিজ্যের প্রয়োজনে দু’বাংলার সঙ্গে যোগা যোগ থাকে আমাদের তবে একুশ-র দিনটি বাকি সব দিন থেকে আলাদা৷ এদিনটি দু’বাংলার আবেগ আর ভালবাসার দিন৷ ভাষা শহীদদেরকে শ্রদ্ধা জানাতে আমাদের শতাধিক সদস্যরা একত্রিত হয়ে আগামী দিনের দু’বাংলার সীমান্ত বাণিজ্যকে আরও মজবুত করতে অঙ্গিকার বদ্ধ হলাম৷

কবি দেবাশিস রায় চৌধূরী বলেন বাংলা ভাষাকে আরও বেশি করে ভালবাসতে হবে, বিশেষ করে শিশুদেরকে বাংলা ভাষার বই পড়তে উৎসাহী করে তুলতে হবে৷ ডিজিটাল মাধ্যম হোক বা কাগজে কলম দিয়ে প্রিয়জনদেরকে সপ্তাহে একটি করে নিজের হাতে সহজ বাংলা ভাষায় চিঠি লিখেও ভাষা শহীদদের এই যুদ্ধকে জারী রাখা যেতে পারে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here