দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ উত্তর-পশ্চিম ভারতে কড়া নাড়ছিল নতুন এক পশ্চিমী ঝঞ্ঝা। এর দাপটেই অকাল বর্ষণের পূর্বাভাস জারি হয়েছিল বাংলার পাহাড় থেকে সমতলে। হাওয়া অফিস জানিয়েছিল, ঝেঁপে বৃষ্টি নামবে কলকাতা সহ দক্ষিণের জেলাগুলিতে। উত্তরের পাহাড়ি জেলাগুলিও ভাসবে। বাঙালির সরস্বতী পুজো বৃষ্টিতে মাটি হবে কিনা সে চিন্তাই ভাবাচ্ছিল। তবে শুক্রবার বিকেলে আলিপুর আবহাওয়া দফতর স্বস্তির খবর দিয়েছে।

শুক্রবার সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার ছিল। বেলা গড়াতেই ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি নামে কলকাতা ও সংলগ্ন এলাকাগুলিতে। সকালের তাপমাত্রাও ছিল কম। গরমের প্যাচপ্যাচানি ছিল না। আগামী কয়েকদিনও ভারী বৃষ্টি হবে বলে চিন্তা ছিল শহরবাসীর। এদিকে সরস্বতী পুজোর প্রস্তুতিও তুঙ্গে। কিন্তু হাওয়া অফিস জানিয়ে দিয়েছে, পশ্চিমের জেলাগুলিতে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হলেও কলকাতা সহ দক্ষিণে বৃষ্টির সম্ভাবনা তেমন নেই।

নতুন পশ্চিমী ঝঞ্ঝা সরে গেছে। হরিয়ানা থেকে বিহার পর্যন্ত যে বৃষ্টি অক্ষরেখা তৈরি হয়েছিল তা শক্তি হারিয়েছে। ফলে আবারও আবহাওয়ার পরিবর্তন হবে। আপাতত বাংলায় মুষলধারে বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। সরস্বতী পুজোর দিন কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের বেশিরভাগ জেলাতেই বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, বীরভূমে শনিবার হাল্কা বষ্টির সম্ভাবনা আছে।

রবিবার আকাশ পরিষ্কার থাকবে। পশ্চিমী ঝঞ্ঝা সরে যাওয়ায় শীত ফিরতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহবিদেরা। আগামী সোমবারের মধ্যে ৩ থেকে ৪ ডিগ্রি পর্যন্ত তাপমাত্রা নামতে পারে। দাপুটে শীত না ফিরলেও শীতের আমেজ টের পাবেন শহরবাসী।

উত্তরবঙ্গে শনিবার থেকে বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করেছে হাওয়া অফিস। আগামীকাল দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার ও জলপাইগুড়ি এই পাঁচ জেলায় বৃষ্টি হবে। বাকি উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর এবং মালদা জেলাতে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here