দেশের সময় ওযেবডেস্কঃ দিল্লির হাইভোল্টেজ সফর সেরে কলকাতায় ফিরছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷একুশের বিধানসভা ভোটে বিপুল জয়ের পর গত সোমবার প্রথম দিল্লি সফরে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাঁচ দিনে দ্বৈত ভূমিকায় দেখা গিয়েছে তাঁকে। এক, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করে রাজ্যের বিভিন্ন দাবিদাওয়া জানিয়েছিলেন মমতা। সেইসঙ্গে জাতীয় স্তরে নিজেকে বিরোধীনেত্রী হিসেবে তুলে ধরতে একাধিক সর্বভারতীয় ও আঞ্চলিক বিরোধী দলের নেতানেত্রীদের সঙ্গে দেখা করেছেন দিদি। শুক্রবার দিল্লি ছাড়ার আগে জানিয়ে দিলেন, এবার থেকে দু’মাস অন্তর দিল্লি সফরে যাবেন তিনি।

এদিন মমতা জানিয়েছেন, তাঁর এই দিল্লি সফর সফল। একদিকে তিনি যেমন রাজ্যের বিভিন্ন দাবিদাওয়া জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে, তেমনই বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতানেত্রীদের সঙ্গে দেখা করেছেন। মমতা এদিন রাজধানী ছাড়ার আগে সাংবাদিক সম্মেলন করে বলেন, “ভ্যাকসিন এবং ওষুধের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীকে বলেছি। এবার দিল্লি এসে অনেক রাজনৈতিক নেতানেত্রীদের সঙ্গে আমার সাক্ষাৎ হয়েছে। সংসদে গেলে সবার সঙ্গে একসঙ্গে দেখা হত। কিন্তু কোভিডের কারণে সেই পরিস্থিতি নেই।”

ফের একবার পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি, রান্নার গ্যাসের দাম বেড়ে যাওয়া, বেকারি—ইত্যাদি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করেন মমতা। তাঁর কথায়, “দেশের পরিস্থিতি ভাল নয়। কোনও মানুষ ভাল নেই। আগে দেশকে বাঁচাতে হবে। দেশের উন্নতি চাই, মানুষের উন্নয়ন চাই’।

এবার দিল্লি সফরে একাধিক বিরোধী নেতানেত্রীর সঙ্গে দেখা করেন তৃণমূলনেত্রী। বুধবার ১০ জনপথে গিয়ে কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী এবং রাহুল গান্ধীর সঙ্গে দেখা করেন তিনি। বৈঠক করেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গেও।বৃহস্পতিবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করেন ডিএমকে-র সাংসদ কানিমোঝি। উপস্থিত ছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.