দেশের সময় ওয়েব ডেস্কঃলকডাউনের মেয়াদ আর বাড়ানো হবে কি না, তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে জোর জল্পনা চলছে। অনেকের মতে, অনিচ্ছা সত্বেও সংক্রমণের শৃঙ্খল ভাঙতে দেশের মানুষকে ৩ মে’র পরেও আরও বেশ কিছুদিন গৃহবন্দি করে রাখা ছাড়া সরকারের কাছে বিকল্প কোনও পথ খোলা নেই। সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমে এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন তাঁদের সেই জল্পনায় ইন্ধন জুগিয়েছে। রিপোর্টে বলা হয়েছিল, আগামী ১৬ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়াতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার। যদিও অন্য মহলের মতে, দেশের করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে অর্থনীতির স্বার্থে সরকার লকডাউন প্রত্যাহারের পথে যেতে পারে, তা সে আংশিক হোক না কেন। আর তেমন হলে বিস্মিত হওয়ার কিছু নেই।

  • বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভিডিয়ো কনফারেন্সে বৈঠক করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।
  • বৈঠকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যোগ দিয়েছেন।
  • বৈঠকে নির্ধারিত সময়ে কথা বলবেন মেঘালয়, মিজোরাম, পুদুচেরি, উত্তরাখণ্ড, হিমাচলপ্রদেশ, ওডিশা, বিহার, গুজরাট ও হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীরা।

দেশের ৯টা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে লকডাউনের দ্বিতীয় পর্বের শেষের মুখে ফের ভিডিও কনফারেন্সে বৈঠক শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে যোগ দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ–ও। এই ৯টা রাজ্যের মধ্যে আছেন বিহার, ওডিশা, হরিয়ানা, গুজরাট, উত্তরাখণ্ড, হিমাচল প্রদেশ, মিজোরাম, মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রীরা।এছাড়া দিল্লি এবং পুডুচেরির মতো দুই কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মুখ্যমন্ত্রীরাও। কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নও বৈঠকে যোগ দেননি। কেরল সরকারের তরফে কেন্দ্রকে লিখিতভাবে তাদের মতামত এবং পরামর্শ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে কেরলের মুখ্যসচিব রাজ্য সরকারের তরফে বৈঠকে যোগ দিয়েছেন।

আজকের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ফের এক বার আর্থিক প্যাকেজের দাবি তুলতে পারেন মুখ্যমন্ত্রীরা। এ ছাড়া বিদেশে এখনও আটকে থাকা ভারতীয়দের দেশে ফেরানোর বিষয়টিও উঠে আসতে পারে। ফাইল চিত্র৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here