দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ২০০ কোটি টাকার তহবিল ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার করোনাভাইরাস মোকাবিলার জন্য নবান্নে জরুরি বৈঠক ডেকেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই একথা ঘোষণা করেন তিনি। তহবিল ঘোষণার পাশাপাশি বলা হয়েছে করোনা মোকাবিলায় যে সব স্বাস্থ্য কর্মীরা কাজ করছেন সেরকম ১০ লক্ষ কর্মীর জন্য ৫ লক্ষ টাকার অতিরিক্ত বিমার ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার।

এছাড়াও মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে রাজ্যের সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়-মাদ্রাসা এবং আইসিডিএস শিক্ষাকেন্দ্র। এই আইসিডিএস-এর পড়ুয়াদের যে মিড ডে মিল তার কাঁচামাল হিসেবে বাড়িতে বাড়িতে পাঠানো হবে চাল ও ডাল। পাশাপাশি ৩১ মার্চ পর্যন্ত রাজ্যের সমস্ত সিনেমা হল, অডিটোরিয়াম, সুইমিং পুল, স্টেডিয়াম এবং রিয়্যালিটি শোয়ের শ্যুটিং বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

এদিনের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত ৩২৪০০০ জনের স্ক্রিনিং হয়েছে। ৫৫৯০ জনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। করোনা মোকাবিলায় রাজ্যের তরফে ২ লক্ষ এন-৯৫ মাস্কের বরাত দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ১০ হাজার থার্মোমিটার গান কেনা হচ্ছে এবং ৩০০ ভেন্টিলেটরের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে।

সুরক্ষার খাতিরে শপিং মল, সরকারি ও বেসরকারি অফিসে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখতে হবে। ধর্মীয় সংগঠন ও ক্লাবের প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর আবেদন- যে কোনও ধরনের ভিড় ও জমায়েত এড়িয়ে চলুন। বেসরকারি হাসপাতালগুলোকেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অনুরোধ করেছেন কোনও করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীকে যাতে ফেরানো না হয়। এছাড়া রেল এবং বাসের ফ্রিকোয়েন্সি বাড়ানোর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

  • করোনা মোকাবিলায় ২০০ কোটি টাকার তহবিল বরাদ্দ করা হয়েছে।
  • এখনও পর্যন্ত ৩ লক্ষ ২৪ হাজার জনের স্ক্রিনিং হয়েছে। ৫৫৯০ জনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে।
  • ২ লক্ষ এন-৯৫ মাস্কের বরাত দেওয়া হয়েছে।
  • ১০ হাজার থার্মোমিটার গান কেনা হচ্ছে।
  • ৩০০ নতুন ভেন্টিলেটরের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে।
  • করোনা মোকাবিলায় রত ১০ লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মীর জন্য ৫ লক্ষ টাকা অতিরিক্ত বিমার ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার।
  • শপিং মল, সরকারি ও বেসরকারি অফিস– সর্বত্র হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখতে হবে।
  • ধর্মীয় সংগঠন ও ক্লাবগুলি যেন যে কোনও ধরনের ভিড় ও জমায়েত এড়িয়ে চলে।
  • বেসরকারি হাসপাতালগুলোকে অনুরোধ, কোনও করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীকে যেন ফেরানো না হয়।
  • ট্রেন ও বাসের সংখ্যা আরও বাড়ানোর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।
  • ৩১ মার্চ পর্যন্ত সিনেমা হল, অডিটোরিয়াম, সুইমিং পুল, রিয়েলিটি শো-র শুটিং, স্টেডিয়াম বন্ধ রাখতে হবে।
  • সমস্ত স্কুল ও আইসিডিএস কেন্দ্র ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here