দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে আগেই টান পড়েছিল মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারে। পশ্চিম মেদিনীপুরের ওষুধের দোকানিরা এখন বলছেন যে গত দু’দিনে তাঁদের দোকানে কন্ডোমের বিক্রি বেড়ে গেছে প্রায় তিন গুণ। তার ফলে এক সপ্তাহের ‘স্টক’ কোনও দোকানে শেষ হয়ে গেছে আবার কোনও দোকানে শেষ হব হব করছে। সপ্তাহের শেষে নতুন ‘স্টক’ আসার কথা। তাই এখন চিন্তায় পড়ে গেছেন দোকানিরা। মেদিনীপুর শহরের বিভিন্ন দোকানে খোঁজ নিয়ে এই তথ্য জানা গেছে।

মেদিনীপুর শহরের দোকানগুলিতে মোটামুটি ভাবে দিনে গড়ে ২০ থেকে ২৫ প্যাকেট করে কন্ডোম বিক্রি হয়। এজন্য সব ব্র্যান্ড মিলিয়ে দেড়শো থেকে দুশো প্যাকেট কন্ডোম ‘স্টক’ করে দোকানগুলি। গত দু’দিনে গড়ে ৭৫ থেকে ৮০টি করে প্যাকেট বিক্রি হয়েছে ফলে অনেক দোকানেই ‘স্টক’ শেষ। কোনও কোনও দোকানে স্টক রয়েছে সামান্য। দোকানিরা মনে করছেন যে এখন এই জিনিসটির অভাব তৈরির আশঙ্কা রয়েছে।

কয়েকদিন ধরেই ‘বাড়িতে থাকা’ নিয়ে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় চটুল মেসেজ ঘুরছে। অনেক মেসেজে আবার অনুরোধের ভঙ্গিতে বলা হচ্ছে যে বাড়িতে থাকা যেন জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের অন্তরায় না হয়ে পড়ে। এখন সেই চটুল মেসেজই চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ওষুধের দোকানগুলির কাছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here