প্রজাতন্ত্র দিবসে দিল্লির রাজপথে এবার জায়গা পাচ্ছে না পশ্চিমবঙ্গের ট্যাবলো ফুঁসে উঠল তৃণমূল

0
482

দেশের সময় ওয়েব ডেস্কঃ প্রজাতন্ত্র দিবসে দিল্লির রাজপথে যে প্যারেড হবে তাতে এবার জায়গা পাচ্ছে না পশ্চিমবঙ্গের ট্যাবলো। প্রতিরক্ষামন্ত্রকের বিশেষ কমিটি এবার বাংলার প্রস্তাব খারিজ করে দিয়েছে। আর এই ঘটনায় কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকার তথা বিজেপির বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠল তৃণমূল।

রাজ্যের মন্ত্রী তাপস রায় সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বলেছেন, “কেন্দ্রীয় সরকারের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে তৃণমূল আন্দোলন করছে বলেই এই ঘটনা। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের নিরুদ্ধে আমরা রাস্তায় নেমেছি বলেই বাংলার ট্যাবলোকে প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে জায়গা দেওয়া হয়নি।” তিনি আরও বলেন, “কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্ত আসলে বাংলার মানুষকে অপমান করা।”

প্রতিরক্ষামন্ত্রকের যে কমিটি ট্যাবলো বাছাইয়ের কাজ করে, তারা খারিজ করে দিয়েছে রাজ্যের প্রস্তাব। গত বছরও দিল্লিতে কুচকাওয়াজে বাংলার ট্যাবলো দেখা গিয়েছিল। রাজ্যের লোকশিল্প, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের কোলাজ শোভা পেয়েছিল তাতে। কিন্তু এবার আর তা হচ্ছে না।

ওই কমিটির তরফে জানানো হয়েছে, দেশের রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি থেকে মোট ৫৬টি প্রস্তাব গেছিল প্রতিরক্ষামন্ত্রকের ওই কমিটির মধ্যে থেকে। তার মধ্যে ২২টি প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে। বাকিগুলি খারিজ করে দিয়েছে ট্যাবলো বাছাইয়ের কমিটি। তার মধ্যে রয়েছে বাংলাও।

প্রতিরক্ষামন্ত্রকের তরফে বলা হয়েছে, এই ট্যাবলো বাছাইয়ের প্রক্রিয়া অনেক পুরনো। প্রতিবছর প্রজাতন্ত্র দিবসের অনেকটা আগে থেকেই এই কমিটি বৈঠকের পর বৈঠক করে চূড়ান্ত তালিকা ঠিক করে। কোন রাজ্য কী থিম করছে, সেখানে কোন ধরনের শিল্প-সংস্কৃতির প্রদর্শন হচ্ছে, সেসব খতিয়ে দেখেই সিদ্ধান্ত নেয় কমিটি।

যদিও বাংলার বিজেপি নেতারা তৃণমূলের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। বাংলা বিজেপির অন্যতম মুখপাত্র জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন, “রাজ্য সরকার সবেতেই রাজনীতির গন্ধ পায়। আসলে বাংলায় তৃণমূল যেটা বিরোধীদের সঙ্গে করে, সেটা ভেবেই ওরা এসব কথা বলছে।” তিনি আরও বলেন, “ট্যাবলোর ব্যাপারটা কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রকের বিশেষ কমিটি ঠিক করে। শুধু তো বাংলা নয়, অনেকগুলি রাজ্যেরই ট্যাবলো বাতিল করা হয়েছে। যা হয়েছে সবটা নিয়ম মেনেই।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here