বনগ্রাম লিটল ম্যাগাজিন মেলা নিয়ে লিখলেন~

রুদ্রপ্রসাদ ঘোষ:

আমরা কখনও বলিনি বনগাঁর সাহিত্যকে আমরা শাসন করব কিংবা এ শহরের সাহিত্যের শেষ কথা লিখব আমরাই অথবা কবিতা নিয়ে গুণ্ডামি, ভণ্ডামির দুঃসাহসও আমাদের নেই। আমাদের আছে শুধুই “লাগামছাড়া স্বপ্ন বুকের ভেতর, আছে বেপরোয়া বোতাম বিহীন শার্ট…” আর আমরা বেসিকালি স্বপ্ন দেখতে হবে বলেই স্বপ্ন দেখিনি কখনওই। যদি শুধু স্বপ্নের জন্যই স্বপ্ন দেখতাম তবে “শুঁয়োপোকা” যেমন হত না তেমনই প্রথম বনগ্রাম লিটল ম্যাগাজিন মেলার সূচনাও হতনা ২০১৯ সালে।

এ শহরের বহু গুণী মানুষের কাছে আমরা চিঠি পৌঁছে দিতে না পারলেও যেভাবে তাঁরা অংশগ্রহণ করেছেন মেলায়, এটা যেমন আমাদের প্রাপ্তির তালিকায় থাকবে একইসাথে যাঁরা ভুল ক্ষমা করতে পারলেন না, প্রকাশ্যে দলবাজি করে গেলেন এবং সাহিত্যের শহরে নিজেদেরকে যেভাবে কবিতা মাফিয়া বানিয়ে তুলছেন তাদের প্রতিও আমাদের ভালবাসা অফুরান।

এ শহর শুধু শুনিয়েই গিয়েছে আমাদের বিভূতি আছে, দীনবন্ধু আছে, রাখালদাস আছে কিন্তু আজও সাহিত্যের অনুষ্ঠান হলে ৫০-৬০ জনের বেশি মানুষের উপস্থিতি চোখে পড়েনি কারোরই। নিজের কবিতাপাঠ পর্ব মিটে গেলে আমি নিজেও অনুষ্ঠান ছেড়ে পালানোর পরিকল্পনা নিই। এত দল, এত মত, এত দাদা-দিদির শহরে বিভূতিভূষণ হয়তো দমবন্ধ হয়ে মারা যেতেন যদি তিনি এখনকার বনগাঁয় থাকতেন।

কোন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মেলা করছে না। বনগ্রাম লিটল ম্যাগাজিন মেলা কমিটিই মেলার আয়োজক, সহযোগী বন্ধু – উপহার।

গত শুক্রবার বিকালে মেলার উদ্বোধন হয়েছে। শনি এবং রবিবার মেলা চলবে। সকলে আসুন, জমিয়ে তুলুন।

ছবিতে মেলার উদ্বোধনের মুহূর্তে শ্রী শঙ্কর আঢ্য, শ্রী রাহুল পুরকায়স্থ সহ বিশিষ্টজনেরা।

Previous articleদেশেও ঠাঁই হবে না বিজেপির :মমতা
Next articleপ্রথম ‘কলকাতা ইন্টারন্যাশনাল ফটোগ্রাফি ফেস্টিভাল’ শুরু হচ্ছে ফেব্রুয়ারিতে,বিস্তারিত জানতে পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here