দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ দিল্লি ভোটে জয়ের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই পরবর্তী মন্ত্রিসভা সম্পর্কে জানিয়ে দিলেন আম আদমি পার্টির নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি বলেছেন, নতুন কাউকে মন্ত্রী করছেন না। গতবারে তাঁর যে মন্ত্রিসভা ছিল, এবারেও তাই থাকবে। শোনা যাচ্ছিল, নতুন দু’জন মন্ত্রী হতে পারেন। তাঁরা হলেন রাঘব চাড্ডা ও অতিশী। কিন্তু কেজরিওয়াল বলেন, যে মন্ত্রীদের কাজ দেখে দিল্লিবাসী ভোট দিয়েছেন, তিনি তাঁদের কাউকে সরাতে চান না।

দিল্লিতে তৃতীয় আপ সরকারের মন্ত্রিসভায় আপাতত থাকছেন মণীশ সিসোদিয়া, সত্যেন্দ্র জৈন, গোপাল রাই, কৈলাস গহলৌত, ইমরান হুসেন এবং রাজেন্দ্র পাল গৌতম। মঙ্গলবার দিল্লি ভোটের ফল প্রকাশিত হয়। ৭০ টি বিধানসভা আসনের মধ্যে আপ পায় ৬২ টি। কেজরিওয়াল বলেন, আমরা নতুন ধরনের রাজনীতি করছি। আমরা জোর দিয়েছি কাজের ওপরে। তাঁর কথায়, “দিল্লির মানুষ বুঝিয়ে দিয়েছেন, তাঁরা চান নতুন স্কুল, মহল্লা ক্লিনিক, ২৪ ঘণ্টা বিদ্যুৎ ও বিনা পয়সায় জল।

সারা দেশের কাছেই তাঁরা বার্তা পাঠিয়েছেন।”
১৬ ফেব্রুয়ারি তৃতীয়বারের জন্য দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। দিল্লির রামলীলা ময়দানে হবে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান। বুধবার এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন আপ নেতা মণীশ সিসোদিয়া। বুধবার দিল্লির উপ-রাজ্যপাল অনিল বৈজালের সঙ্গে বৈঠকে শপথগ্রহণের দিনক্ষণ জানিয়ে আসেন মুখ্যমন্ত্রী। মঙ্গলবার বিপুল জয়ের পরে কেজরিওয়াল অবশ্য জানিয়েছিলেন ১৪ ফেব্রুয়ারি ভ্যালেন্টাইনস ডের দিনে হবে শপথগ্রহণ।

দিল্লির ঐতিহাসিক রামলীল ময়দান নতুন ইতিহাসের সক্ষী হবে রবিবার। এই ময়দানেই কয়েক বছর আগে সমাজকর্মী আন্না হাজারের সঙ্গে দুর্নীতি বিরোধী আন্দোলনে শামিল হয়েছিলেন কেজরিওয়াল। এর পরেই রাজনৈতিক দলগঠন। সেই অর্থে বলা যায়, রামলীলা ময়দান আম আদমি পার্টির আঁতুড়ঘর।
কেজরিওয়ালের শপথে ফের একবার বিরোধী ঐক্যের ছবি দেখা যাবে কিনা তা নিয়ে ইতিমধ্যেই আলোচনা শুরু হয়েছে। ঝাড়খণ্ডে হেমন্ত সোরেনের শপথে বিজেপি বিরোধী দলগুলোর শক্তি প্রদর্শন দেখা গিয়েছলি। এবার তার প্রতিফলন দেখা যেতে পারে রামলীলা ময়দানে। আপ সূত্রে খবর, শুধু কংগ্রেস-সহ বিভিন্ন বিরোধী দলকেই নয়, বিজেপি নেতৃত্বকেও এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হবে। তবে জোর চেষ্টা চলছে যাতে সব বিরোধী দলের প্রধানদের হাজির করা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here