দেশের সময় ওয়েবডেস্ক: করোনার তাণ্ডবের নিরিখে সারা দেশের বিভিন্ন অংশকে লাল, কমলা এবং সবুজ রঙের তিনটি জোনে ভাগ করা হচ্ছে। তার ভিত্তিতেই সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলিতে লকডাউনের নিয়ম শিথিল অথবা কড়া করা হবে। দেশের যে অংশে করোনার প্রকোপ সবচেয়ে বেশি তাকে রেড জোন, যেখানে তার থেকে কিছুটা কম তাকে অরেঞ্জ জোন এবং যেসব অংশে করোনার প্রকোপ নেই তাকে গ্রিন জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হবে। এতে লকডাউনের মধ্যে কিছু ছাড় দিতে পারবে সরকার৷


উল্লেখ্য, শনিবার কমপক্ষে ১৩ জন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও বৈঠকের পর করোনাভাইরাস প্রকোপের নিরিখে দেশের বিভিন্ন অংশকে তিনটি রঙে চিহ্নিত করা হচ্ছে। ট্র্যাফিক লাইটের এই তিনটি রঙের ভিত্তিতেই ভাইরাসমুক্ত অঞ্চলগুলিকে চিহ্নিত করা হচ্ছে। তার নিরিখেই এলাকাগুলির সাধারণ মানুষের জীবনযাপনের ধরন নির্ভর করছে।


সূত্রের খবর, দেশের ৪০০ এমন জেলা রয়েছে যেখানে এখনও করোনা আক্রান্তের কোনও খবর নেই। ওইসব জেলাকে গ্রিন জোন হিসেবে ঘোষণা করা হবে। যেসব জেলায় ১৫টির থেকে কম করোনা রোগীর সন্ধান পাওয়া গিয়েছে ও রোগীর সংখ্যা আর বাড়ছে না তাকে অরেঞ্জ জোন হিসেবে ঘোষণা করা হবে। এইসব জায়গায় আংশিকভাবে যানবাহন চলাচল ও কৃষিকাজের অনুমতি দেওয়া হবে।

যেসব জায়গায় ১৫টির বেশি করোনার ঘটনা ধরা পড়েছে তাকে রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হবে। ওইসব জায়গায় সম্পূর্ণ লকডাউন করা হবে। তবে সমস্ত জোনেই লকডাউনের প্রাথমিক শর্ত শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here