দেশের সময়,বনগাঁ: উত্তর২৪পরগনার গ্রামগুলিতে করোনা ভাইরাস রুখতে ,গ্রামের সাধারণ মানুষদেরকে সচেতন করার লক্ষ্যে নীরবে করোনা সতর্কতা নিয়ে প্রচারের কাজ করে চলেছে একদল যুবক।

বনগাঁর একটি সেচ্ছাসেবী সংস্থার এক সদস্যের কথায় এই লড়াইটা আমাদের জিততে হবে, জেতাতে হবে মানব জাতিকে। নভেল করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ মোকাবিলায় গ্রামে গ্রামে এবং বনগাঁর নানান প্রান্তে জনস্বার্থে জনসচেতনতা মূলক প্রচার অভিযান শুরু করেছে ‘দায়বদ্ধতা’-র পক্ষ থেকে।

গ্রামের মানুষকে সচেতন করার পাশাপাশি বোঝানো হচ্ছে যাতে তারা গুজবে কান না দেন বা অযথা আতঙ্কিত না হন। করোনা মোকাবিলায় প্রধান অস্ত্র সাবান-জল দিয়ে ভালো করে হাত ধোয়া, হাঁচি কাশির সময় পরিষ্কার রুমাল বা টিস্যু পেপার দিয়ে নাক মুখ ঢাকা , একে অন্যের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রাখা, যতটা সম্ভব বাড়িতেই থাকা আর জ্বর সর্দ্দি কাশি হলে সকলের থেকে নিজেকে আলাদা রাখা।

হ্যান্ড স্যানিটাইজার বা মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক নয়, কিন্তু সাবান-জল এবং রুমাল বা টিস্যু পেপার ব্যবহার বাধ্যতামূলক। সেই কারণে ২৩.০৩.২০২০ তারিখ থেকে এই সংস্থার থেকে সুন্দরপুর গ্রাম, বনগাঁ বাটা মোড়, ত্রিকোণ পার্ক‌‌‌ সহ আরো অন্যান্য জায়গায় অ্যাওয়ারনেস বুকলেট, হাত ধোয়ার লাইফবয় সাবান এবং টিস্যু পেপার দেওয়া হয় সাথে মানুষকে বোঝানো হয় তাদের অবশ্য পালনীয় দায়িত্ব সম্পর্কে।

সংস্থার সদস্যরা সকলকে একটাই বার্তা দেওয়া চেষ্টা করে চলেছেন”সতর্ক থাকুন, কোন গুজব ছড়াবেন না কিংবা অযথা আতঙ্কিত হবেন না।” মানুষ সচেতন হলেই “করোনা”-কে হারাতে পারব আমরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here