দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ ইতিহাস গড়ল ভারতীয় হকি দল। টোকিও অলিম্পিকে বিরাট কীর্তি মনপ্রীত সিংদের। ৪১ বছর পর হকিতে দেশকে পদক এনে দিলেন তাঁরা। অসাধারণ এক মুহূর্ত, জার্মানির মতো মহা শক্তিধর দেশকে সমানে লড়াই করে তাদের ৫-৪ গোলে হারানো সহজ কথা ছিল না। ভারতীয় হকি দলের এই ব্রোঞ্জ প্রাপ্তি সোনারই সমতুল্য।

শেষদিকে খেলা যেন শরীরে শিরশিরানি বইয়ে দেয়। অদ্ভুত এক টেনশন, কী হয়, কী হয়। সেই অবস্থা থেকে চাপ মুক্তের খেলা খেলেছেন ভারতীয় ছেলেরা। এমনকি শেষ কোয়ার্টারে গিয়েও আরও চাপের খেলা হয়েছে। তখন জার্মানি ব্যবধান কমিয়েছে, খেলার ফল হয়েছে ৫-৪, ওটাই শেষমেশ থেকে গিয়েছে। খেলার দুই মিনিটের মাথায় শ্রীজেশ যেভাবে গোল দূর্গ রক্ষা করেছেন, তার জন্য সারা দেশ তাঁকে কুর্নিশ করবে। নিজের জীবনের সম্ভবত সবথেকে বড় সেভ করলেন শ্রীজেশ।

খেলা শেষে যখন ভারতীয় ছেলেরা আনন্দে ভাসছেন, সেইসময় জার্মানি দৃশ্যতই ভেঙে পড়েছে। যেন জার্মান প্রাচীর ভেঙে নয়া সন্ধিক্ষণ হাজির হল অলিম্পিকে। এমন এক টেনশনের ম্যাচে মোট নয় গোল, ভাবা যায় না।

খেলার প্রথম ২ মিনিটের মাথায় গোল করে ভারতের মনোবল ভাঙার চেষ্টা করেছিল জার্মানি। মনপ্রীতদের রক্ষণও কিছুটা দুর্বল মনে হয়েছিল। তারপর খেলা যত গড়িয়েছে, ততই যেন ফুল ফুটিয়েছেন ভারতের ছেলেরা।

টোকিও অলিম্পিকে শুরু থেকে ভারতীয় পুরুষ হকি টিমের পারফরম্যান্স মন্দ ছিল না। গ্রুপ পর্বে দ্বিতীয় স্থানে থেকে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিলেন মনপ্রীতরা। টানা চার ম্যাচে জিতে সেমিফাইনাল লড়াইয়ে নেমেছিলেন।

গ্রেট ব্রিটেনকে ৩-১ গোলে হারিয়ে শেষ চারে জায়গা করে নেয় ভারত। কিন্তু সেমিফাইনালে বেলজিয়ামের কাছে হার মানতে হয়। ভারতীয় টিমকে ২-৫ গোলে হারিয়ে যোগ্য দল হিসেবে অলিম্পিক হকিতে ফাইনালে চলে যায় বেলজিয়াম। ৪১ বছর পরে ফাইনালে ওঠার সুযোগ ছিল ভারতের, কিন্তু তা হাতছাড়া হয়ে যায়।

খেলতে নেমে প্রথম ২ মিনিটেই বড় ধাক্কা খেয়েছেন মনপ্রীতরা। শুরুতেই গোল করে ভারতীয় টিমকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছে জার্মানি। জার্মান দলের হয়ে গোল করেছেন তোবিয়াস হউকে। ভারত পেনাল্টি কর্নার পেলেও কাজে লাগাতে পারেনি। গোল করার সুযোগ ফের হাতছাড়া হয়েছে।

জার্মানির দ্বিতীয় আক্রমণ বুদ্ধি করে রুখে দিয়েছেন শ্রীজেশ। তিনিই হয়তো ম্যাচের সেরা। কারণ সারা টুর্নামেন্টে তো বটেই, এদিনের মহা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচেও শ্রীজেশ যেভাবে একের এক আক্রমণকে রুখে দিয়েছেন, তার জন্য কোনও প্রশংসাই যথেষ্ট নয়।

তবে খেলা শেষ হওয়ার একেবারে শেষমুহূর্তে একটি পেনাল্টি কর্নার পায় জার্মানি ৷ ওইসময় গোল হয়ে গেলেই বিপদ বাড়ত ৷ কিন্তু শেষপর্যন্ত গোল বাঁচিয়ে নিতে সফল ভারত ৷ চক দে ইন্ডিয়া… !

শেষবার ১৯৮০ সালে অলিম্পিকের হকিতে পোডিয়ামে উঠেছিল ভারত ৷ অলিম্পিক্স হকিতে আটটি সোনাজয়ী ভারতের গত ৪১ বছরে কোনও পদকই জোটেনি ৷ ব্রোঞ্জ হলেও শেষপর্যন্ত মনপ্রীতদের হাত ধরেই এল সেই বহু কাঙ্খিত মেডেল ৷ বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে হারের পর সোনা জয়ের আশা শেষ হয়ে গিয়েছিল৷ কিন্তু এদিন ব্রোঞ্জ মেডেল ম্যাচে নিজেদের সেরাটাই দিলেন ভারতীয় হকি দলের খেলোয়াড়রা৷

খেলা শেষ হতেই ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী টুইট করে ভারতীয় হকি দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, এই ঐতিহাসিক মুহূর্ত সমগ্র ভারতকে উদীপ্ত করবে। এই স্মৃতি সারা দেশ তাদের মনিকোঠায় আজীবন লালন করবে। পদক জয়ের জন্য অভিনন্দন জানাই। তাদের এই সাফল্যে দেশের যুব সমাজ দারুণভাবে উদীপ্ত হবে, তোমাদের জন্য সারা দেশের গর্ব হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here