দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ সোমবার কলকাতায় সকালে সামান্য কুয়াশা। পরে মেঘমুক্ত পরিষ্কার আকাশ। কলকাতায় আজ সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৩.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা এই মুহূর্তে স্বাভাবিক। রবিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৩.৪ ডিগ্রী সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি নিচে। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ৫১-৯৮ শতাংশ। 

সকালে ঘন কুয়াশা। উত্তরবঙ্গের দৃশ্যমানতা ৫০ মিটারে নেমে আসার সম্ভাবনা। পরে পরিষ্কার আকাশ। দিনের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নিচে থাকায় দু-একটি জেলায় শীতল দিনের সম্ভাবনা। কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা আজও স্বাভাবিক।

আগামী দু’দিন পারদ চড়বে। ৩-৪ ডিগ্রি তাপমাত্রা বাড়ার সম্ভাবনা। বৃহস্পতিবার রাত থেকে ফের আবহাওয়ার পরিবর্তন হবে। উত্তুরে হওয়ায় ফের পারদ নামবে। শনি ও রবিবার ৪ডিগ্রি পর্যন্ত পারদ নামতে পারে। সপ্তাহান্তে আরও একবার জমিয়ে শীতের সম্ভাবনা রাজ্যে।

কনকনে ঠান্ডায় কাঁপছে উত্তরভারতের একাংশ। চলছে শৈত্যপ্রবাহ। সঙ্গী ঘন কুয়াশাও। এরই মধ্যে অবশ্য কিছুটা বদল দিল্লির আবহাওয়ায়। সোমবার সকালে দিল্লির তাপমাত্রা পৌঁছেছে ১১.২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। দেশের রাজধানীও মোড়া ঘন কুয়াশার চাদরে। আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাস, রাজধানীতে এর মধ্যে বৃষ্টিও হতে পারে।

কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, উত্তরপ্রদেশ, বিহার এবং পশ্চিমবঙ্গের কিছু এলাকায় তীব্র থাকবে শীত। এ ছাড়া হরিয়ানা এবং পঞ্জাবে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে নীচে ঘোরাফেরা করবে। শৈত্যপ্রবাহ জারি রয়েছে কাশ্মীরে। তবে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে আগামী শুক্রবার থেকে  উপত্যকায় বৃষ্টি এবং আরও তুষারপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। ঠান্ডার জেরে ইতিমধ্যেই জমে বরফ ডাল লেক। বেশ কিছু এলাকায় পানীয় জলের উৎসও জমে বরফ হয়ে গিয়েছে।

তবে কুয়াশা থাকবে রাজধানী দিল্লি-সহ পঞ্জাব, হরিয়ানা, চন্ডিগড়, উত্তরপ্রদেশ, বিহারে। কোথাও কোথাও ঘন কুয়াশার সতর্কবার্তা। দৃশ্যমানতা অনেকটাই নেমে যেতে পারে। উত্তরবঙ্গে আগামী কয়েকদিন ঘন কুয়াশার সম্ভাবনা।

সোমবার দিল্লিতে হালকা বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর। আবহবিদদের মতে, আগামী ২ দিন দিল্লির সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে। তাপমাত্রা হতে পারে ৮ থেকে ১৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার উত্তরপ্রদেশের একাংশে হাড়কাঁপানো শীত রয়েছে। রয়েছে ঘন কুয়াশাও। আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, উত্তরপ্রদেশ ছাড়াও, উত্তর রাজস্থান, নাগাল্যান্ড, মণিপুর, মিজোরাম, ত্রিপুরা এবং অসমের কিছু এলাকায় ঘন কুয়াশা বজায় থাকবে। এ ছাড়া দিল্লি, হরিয়ানা, উত্তরাখণ্ড, পঞ্জাব, চণ্ডীগড়, বিহার, ওড়িশা, সিকিমের কিছু এলাকা এবং পশ্চিমবঙ্গের উত্তর অংশে ঘন কুয়াশা থাকবে।

১৯ জানুয়ারি অর্থাৎ মঙ্গলবার রাত থেকে উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমের শীতল হাওয়ায় ফের পারদ নিম্নমুখী হবে। উত্তর-পশ্চিম ভারতের পঞ্জাব, হরিয়ানা, চন্ডিগড়, দিল্লি রাজস্থান ও উত্তরপ্রদেশে তাপমাত্রা ৩-৫ ডিগ্রি নামতে পারে।

বৃহস্পতিবার রাতে জম্মু-কাশ্মীরে নতুন করে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ঢুকবে। যার প্রভাবে ফের আবহাওয়ার পরিবর্তন ২২-২৫ জানুয়ারি। জম্মু-কাশ্মীর, লাদাখ, মজফফরপুর, পঞ্জাব, হরিয়ানা, চন্ডিগড়, দিল্লি, উত্তরপ্রদেশে আবহাওয়া পরিবর্তন হবে। হালকা বৃষ্টি ও তুষারপাতের সম্ভাবনা জম্মু কাশ্মীর লাদাখ ও হিমাচল প্রদেশ। ২৪ জানুয়ারি বৃষ্টির সম্ভাবনা বেশি।

মঙ্গলবার দক্ষিণ ভারত থেকে উত্তর পূর্ব মৌসুমি বায়ু এ বছরের মত বিদায় নিচ্ছে। বৃষ্টির সম্ভাবনা কমছে দক্ষিণ ভারতে। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.