দেশেরসময় ওয়েবডেস্কঃ ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের তাণ্ডবে বাংলায় ১৫ হাজার কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । ইয়াসে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ বিলি করতে এবার ‘দুয়ারে সরকারের’ আদলে ‘দুয়ারে ত্রাণ’, পরিষেবা শুরু করা হচ্ছে বলে ঘোষণা করলেন মমতা। ত্রাণ বিলিতে স্বচ্ছতা আনতে এবার জোর দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। ত্রাণ বিলিতে ১ হাজার কোটি টাকা দেওয়া হচ্ছে।

এই প্রসঙ্গে এদিন সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে টাস্ক ফোর্স তৈরি করা হচ্ছে। ত্রাণের জন্য হাজার কোটি টাকা দেওয়া হচ্ছে রাজ্যের পক্ষ থেকে। দুয়ারে সরকারের মতো দুয়ারে ত্রাণের ব্যবস্থা করব।

গ্রাম পঞ্চায়েত ও ব্লক পর্যায়ে চলবে এই কর্মসূচি। ৩ জুন থেকে ১৮ জুন পর্যন্ত দুয়ারে ত্রাণ পরিষেবা শুরু করা হবে। কারও কথায় কোনও ত্রাণ বণ্টন হবে না। খতিয়ে দেখে ত্রাণ বিলি করা হবে। ত্রাণের জন্য আবেদন করার বাক্স থাকবে। সেখানে আবেদন করা যাবে। ১৫ দিন ধরে চলবে এই কর্মসূচি।

প্রতিটি আবেদনপত্র খুঁটিয়ে দেখা হবে। ১৯ জুন থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত সময় নেব। ১ জুলাই তেকে ৮ জুলাইয়ের মধ্যে ত্রাণ ব্যাঙ্কের মাধ্যমে উপভোক্তাদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে’।

মমতা আরও বলেন, ‘অবিলম্বে পানীয় জল সরবরাহ, চিকিৎসা পরিষেবা প্রদান করতে হবে’। ইয়াসের তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্তদের ১৫ দিন পানীয় জলের পাউচ সরবরাহ করতে জনস্বাস্থ্য কারিগরি দফতরকে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। ঝড়ের দাপটে ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা মেরামতিতে পথশ্রী প্রকল্পের অর্থ কাজে লাগানো হবে। ব্লকে ব্লকে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের পাঠানো হবে বলেও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

শুক্রবার ইয়াসের ধ্বংসলীলা সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে বাংলায় আসবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার কলাইকুণ্ডায় মোদী-মমতা বৈঠক।বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ইয়াসের ক্ষয়ক্ষতি খতিয়ে দেখতে বৈঠক ডেকেছেন মোদী। ওড়িশা থেকে ফেরার পথে দিঘা হয়ে কলাইকুণ্ডায় নামবেন তিনি। সেখানেই রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে আমরা একটা বৈঠক করব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here