দেশের সময় ওযেবডেস্কঃ পশ্চিমবঙ্গে গত ৫ মে থেকে বন্ধ রয়েছে লোকাল ট্রেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে ১৬ মে থেকে রাজ্যজুড়ে কার্যত লকডাউন জারি করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। বিধিনিষেধের মেয়াদ আগামী ১৫ জুন পর্যন্ত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। বাংলায় সারাদিনে হাতে-গোনা কয়েকটি ট্রেন চলছে রেলকর্মীদের জন্য।

এই পরিস্থিতিতে ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে কর্মীদের সুরক্ষিত রাখতে স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেনে যে কোনও সাধারণ যাত্রীদের ওঠার অনুমতি দিতে নারাজ রেল কর্তৃপক্ষ। তবে এতদিন শুধুমাত্র স্বাস্থ্যকর্মীদেরই স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেনে চড়ার অনুমতি মিলেছিল। শুক্রবার থেকে স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেনে চড়ার সুযোগ পাচ্ছেন বাংলার ব্যাঙ্ককর্মীরাও।

গত মঙ্গলবার অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক অফিসার্স’ কনফেডারেশনের পশ্চিমবঙ্গ শাখার সূত্রে জানাগিয়েছে, বাংলার ব্যাঙ্ককর্মীদের পাশে দাঁড়িয়ে রাজ্যসরকার মঙ্গলবারই পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষের কাছে স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেনে চড়ার অনুমতির আবেদন জানিয়েছিল।

রাজ্যসরকারের সমর্থন মিলতেই কার্যত দীর্ঘদিনের বাধা পেরিয়ে স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেনে চড়ার অনুমতি পেতে চলেছেন এ রাজ্যের ব্যাঙ্ককর্মীরা। মঙ্গলবারই পূর্ব রেলের সিনিয়র ডিভিশনাল কমার্শিয়াল ম্যানেজারের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা হয়েছে বলে জানাগিয়েছে। 

এ বার নিজেদের উপযুক্ত পরিচয়পত্র দেখিয়ে টিকিট কাউন্টার থেকে মান্থলি টিকিট কাটতে পারবেন রাজ্যের ব্যাঙ্ককর্মীরা। একই ভাবে পরিচয়পত্র দেখিয়ে স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেনে চড়ার অনুমতি পাবেন ব্যাঙ্ককর্মীরা।

গত মঙ্গলবারই স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেনে চড়ার ক্ষেত্রে পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষের মৌখিক সম্মতি মিলেছিল। হোয়াটস্যাপেও এই বার্তা পৌঁছে গিয়েছিল ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের কাছে। আজ সরকারি ভাবে লিখিত অনুমতিপত্র হাতে পাওয়ার পর স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেনে চড়ার ক্ষেত্রে আর কোনও বাধা রইল না বাংলার ব্যাঙ্ককর্মীদের।

বৃহস্পতিবার বিকেলেই স্টেশন ম্যানেজার, টিটিই-সহ রেলের অন্যান্য বিভাগীয় কর্তাদের কাছে এই ছাড়পত্রের নির্দেশ পাঠিয়েছেন পূর্ব রেলের ডিভিশন্যাল কমার্শিয়াল ম্যানেজাররা। তাতেই জানানো হয়েছে, আজ থেকেই ব্যাঙ্ককর্মীদের স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেনে যাতায়াতের অনুমতি দেওয়ার কথা।

অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক অ্যাসোসিয়েশনের থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গের ধাক্কায় দেশজুড়ে লক্ষাধিক ব্যাঙ্ককর্মী করোনায় আক্রান্ত। প্রাণ হারিয়েছেন হাজারেরও বেশি ব্যাঙ্ককর্মী। প্রাণ হাতে নিয়ে ব্যাঙ্কিং ক্ষেত্রের জরুরি পরিষেবা সচল রাখতে চেষ্টা চালাচ্ছেন ব্যাঙ্ককর্মীরা। এ বার বাংলার ব্যাঙ্ককর্মীদের দুর্ভোগ অনেকটাই কমতে চলেছে।

এই সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে এসবিআই স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের (বেঙ্গল সার্কেল) এক সদস্যের কথায় , “রাজ্য সরকারের প্রচেষ্টায় বাংলার ব্যাঙ্ককর্মীদের দুর্ভোগ অনেকটাই কমবে। রাজ্যের ব্যাঙ্ককর্মীদের সহযোগিতার জন্য পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন তাঁরা।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here