দেশের সময় ওয়েবডেস্কঃ সারা দেশের মতো এ রাজ্যেও পালিত হচ্ছে ইদুজ্জোহা। সামাজিক দূরত্ব মেনে, বাড়িতে নমাজ পড়ে তাঁরা ইদুজ্জোহা উদযাপন করলেন।

ইসলামিক ক্যালেন্ডার হিজরি বর্ষপঞ্জি অনুসারে জিলহজ মাসের ১০ তারিখে ইদুজ্জোহা পালিত হয়। শনিবার সকালে ইদুজ্জোহার নমাজ পড়লেন। তবে সরকারি নির্দেশ মেনে মসজিদ, ইদগাহে ২৫ জনের বেশি নমাজে যোগ দেন নি বেশির ভাগ জায়গায়। অন্যরা বাড়ির  ছাদে পরিবারের সবাইকে নিয়ে নমাজ পড়েছেন। যেমনটা হয়েছিল ইদ–‌উল–‌ফিতরের সময়। 

টিপু সুলতান মসজিদের পক্ষে সামি মুবারকি জানিয়েছেন, অতিমারীর কারণে সংক্রমণ চরম পর্যায়ে রয়েছে। তাই সাবধানতা অবলম্বন জরুরি। আমাদের মসজিদে ২৫ জন সামাজিক দূরত্ব রেখে নমাজ পড়তে পারবেন। অন্যদের অনুরোধ করেছেন, মসজিদের ঘোষণা মতো বাড়িতেই নমাজ পড়ুন। 


নাখোদা মসজিদের মৌলানা শফিক কাসমি জানিয়েছেন, এই সময় সামান্য ভুল বড় সমস্যা ডেকে আনতে পারে। তাই দিনভর সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলুক উৎসব। হেজবুল্লাহর পক্ষে নুরুল ইসলাম খান বলেছেন, কঠিন সময়ে সবার সংযম আরও একবার জরুরি। ত্যাগের উৎসব সবাই এভাবেই পালন করুক।কলকাতার রেড রোডে ইদুজ্জোহার নমাজ হচ্ছে না। রাজ্যের সব মসজিদেই যাতে সামাজিক দূরত্ব মেনে নমাজ পড়া হয় তার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আবেদন করেছেন।

শুক্রবার সকাল থেকে ইদুজ্জোহা উপলক্ষে দিনভর প্রস্তুতি চলে কলকাতা–সহ রাজ্যের বিভিন্ন জেলায়। চলে লাচ্ছা, সেমাই বিক্রি। বাড়িতে বাড়িতে চলছে ফিরনি, মাংসের। নানাবিধ পদ তৈরি করে আপ্যায়নের প্রস্তুতি। অতিথি, বন্ধুবান্ধবরা এসেছেন ৷ কিন্তু মনখারাপ কচিকাঁচাদের। অতিমারীর আবহ তাদের উদযাপন কিছুটা ফিকে করে দিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.