দেশের সময় : ২৭ ফেব্রুয়ারি পশ্চিমবঙ্গের ১০৮ টি পৌরসভায় নির্বাচনের ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। তৃণমূলের তরফে ইতিমধ্যেই ১০৮ টি পৌরসভার জন্য প্রার্থী ঘোষণা করা হয়ে গিয়েছে। তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা ঘিরে বিক্ষোভ বেঁধেছে বিভিন্ন জায়গায় জায়গায়। তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের বিক্ষোভ ঘিরে উত্তাল হয়েছে তৃণমূলের অন্দরের রাজনীতি। এই আবহে সোমবার বিজেপি সাংগঠনিক জেলার অন্তর্গত বনগাঁ পৌরসভার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে। পাশাপাশি বনগাঁ পুরসভা নির্বাচনে আসন সমঝোতাতে মতানৈক্য তৈরি হল বাম এবং কংগ্রেসের মধ্যে। নিজেদের চাহিদা অনুসারেই সোমবার সকালে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল বনগাঁ শহর কংগ্রেস।

এদিন বিকেলে বিজেপি-র বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হয়। সেখানে প্রার্থী তালিকায় নাম রয়েছে বিজেপির বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার সাধারণ সম্পাদক দেবদাস মন্ডল-এর। একই সঙ্গে প্রার্থী হয়েছেন বনগাঁ উত্তরের বিধায়কের স্ত্রী, বোন এবং তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করা বনগাঁ পুরসভার দুই প্রাক্তন কাউন্সিলরও।

এদিকে, বনগাঁয় কংগ্রেসের তালিকা অনুযায়ী ২ টি আসনে সিপিএমের পাশাপাশি কংগ্রেসও তাঁদের প্রার্থীর নাম প্রকাশ করেছে। যদিও কংগ্রেস নেতৃত্ব জানিয়েছে, এব্যাপারে বামেদের সঙ্গে এখনও আলোচনার সুযোগ রয়েছে।

বনগাঁ পুরসভা নির্বাচনে বাম এবং কংগ্রেসের মধ্যে আসন সমঝোতা নিয়ে আলোচনা হয়। সেখানে ২২ টি ওয়ার্ডের মধ্যে কংগ্রেস ৯ টি আসন দাবি করে। কিন্তু বামেরা কংগ্রেসকে ৭ টির বেশি আসন ছাড়তে রাজি হয় নি। আর সেই অনুযায়ী কংগ্রেসের জন্য ৭ টি আসন ছেড়ে শনিবার বামেদের পক্ষ থেকে ১৫ টি আসনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হয়। অন্যদিকে, সোমবার কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ৯ টি আসনের জন্য প্রার্থীদের নাম ঘোষনা করা হয়। এক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, ৩ এবং ১৪ নম্ব ওয়ার্ড নিয়ে এখনও মতানৈক্য রয়ে গেছে বাম এবং কংগ্রেসের মধ্যে।

এদিন সাংবাদিক বৈঠকে বনগাঁ শহর কংগ্রেস সভাপতি সুনীল রায় জানান, ‘পুর নির্বাচনে স্বৈরাচারী বিজেপি এবং তৃণমূলের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা বামেদের সঙ্গে আসন সমঝোতা করেছি। সেক্ষেত্রে বন্ধুত্বপূর্ণ লড়াই হবে।’ তিনি আরও‌ বলেন, ‘দুটি আসন নিয়ে এখনও মতানৈক্য রয়েছে। সেটি আলোচনার মাধ্যমে মিটিয়ে ফেলা হবে।’ এদিন নবীন প্রজন্মের একাধিকজন কংগ্রেসে যোগ দেন। তাঁদেরকে প্রার্থীও করা হয়েছে। শহর সভাপতি সুনীল রায় নিজেও প্রার্থী হয়েছেন। তবে কংগ্রেসের কে কোন ওয়ার্ডে প্রার্থী হচ্ছেন, তা এখনও চুড়ান্ত হয় নি। ‌ 

কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকা এক জনরে দেখুন

ইতিমধ্যেই তৃণমূল এবং বামেদের পক্ষ থেকে বনগাঁ পুরসভার প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।কংগ্রেসও তাদের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে। আর এদিনই বিজেপি তাদের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল। সোমবার থেকেই দেওয়াল লিখনের পাশাপাশি প্রার্থীদের অনেকেই সোস্যাল মিডিয়াতেও তাঁদের প্রচার শুরু করে দিয়েছেন।

জেলা বিজেপির পক্ষ থেকে প্রকাশিত তালিকা অনুযায়ী, বনগাঁ পুরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী হয়েছেন দলের বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার সাধারণ সম্পাদক দেবদাস মন্ডল। এবারই তিনি প্রথম পুরসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। দলের ন্যাশনাল কাউন্সিল সদস্য তথা বর্ষীয়ান নেতা মধুসূদন মন্ডল ৩ নম্বর ওয়ার্ডের প্রার্থী হয়েছেন। উল্লেখ্য একই ওয়ার্ডে এবারের তৃণমূল প্রার্থী গোপাল শেঠ ৷

বনগাঁ উত্তরের বিধায়ক আশোক কীর্তনিয়া জানান,বিজেপি জেলা মহিলা মোর্চার সাধারণ সম্পাদিকা প্রিয়াঙ্কা সাহা মন্ডল ২০ নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী হয়েছেন।এদিকে, তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করা প্রাক্তন তৃণমূল কাউন্সিলরদের মধ্যে দীপ্তি সরকার ৮ নম্বরে এবং দীপ্তেন্দুবিকাশ বৈরাগী ১০ নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী হয়েছেন। তাঁরা দুজনই এই দুই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ছিলেন। এর পাশাপাশি, বনগাঁ উত্তরের বিজেপি বিধায়ক অশোক কীর্তনিয়ার স্ত্রী সোনালী কীর্তনিয়া ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে এবং বোন শিউলি মজুমদার ২২ নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী হয়েছেন। প্রতেক্যে রাস্তায় নেমে তৃণমূলের বিরুদ্ধে আন্দোলনে সামিল হয়ে এক সঙ্গে লড়াই করে ভোটে নির্বাচনে জিতে বনগাঁ পুরসভার বোর্ড গঠন করবে এ ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই৷

পুরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী তথা বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার সাধারণ সম্পাদক দেবদাস মন্ডল বলেন ,পরিষ্কার ভাবমূর্তি নিয়ে আমরা বনগাঁ পুরসভায় ক্ষমতায় আসছি। তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে মানুষ অতিষ্ঠ তাঁরা বিজেপিকে এখানে বিধানসভায় যে ভাবে আর্শীর্বাদ করেছিলেন পুর ভোটেও তাঁদের প্রাণ ভরা ভালবাসা দিয়ে আমাদের প্রার্থীদেরকে জয়ী করবেন৷

তৃণমূলের বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার সভাপতি আলোরানী সরকার বনগাঁ পুরপ্রশাসক গোপাল শেঠকে পাশে নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান, এখানে বিজেপি-র পায়ের তলায় আর মাটিনেই, মানুষ আমাদের পক্ষে, ওই দলে আর কেউ নেই বলে দেবদাস মন্ডলকে প্রার্থী করেছে৷ দলে দলে সকলে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেছে অনেক আগেই৷ আগামীদিনে এখানে তৃণমূল ২২ বিজেপি শূন্য করে দেখাব৷

রাজনৈতিক মহলের ধারণা,বিদ্রোহের ভয়ে সাবধানী বিজেপি, লাস্ট পিরিয়ডে ঘোষণা করল বনগাঁ পৌরসভার প্রার্থী তালিকা৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here